রমজান ২০২২

১ লাখ টাকায় যাকাত কত ২০২২ এবং যাকাত লাখে কত টাকা ২০২২ [এখানে দেখুন]

আল্লাহ তাআলা যাকাত আদায় করার জন্য কতগুলো সম্পদ নির্ধারণ করে দিয়েছেন। আল্লাহ তাআলার এই নির্ধারিত সম্পদের উপর যাকাত আদায় করা ফরজ। যাকাত হচ্ছে ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্যে 1 টি।

ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভ হচ্ছে কালেমা, নামাজ, রোজা, হজ ও যাকাত। যাকাত ইসলামের পঞ্চম স্তম্ভ। যাকাত আল্লাহ তাআলার একটি ফরজ ইবাদত। তবে আল্লাহ তাআলা প্রত্যেক ব্যক্তির উপর যাকাত ফরজ করে দেননি।

নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক এর উপর আল্লাহ তাআলা যাকাত ফরজ করে দিয়েছেন। যাদের নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিকানা আছে আল্লাহ তাদেরকে খুবই গুরুত্বের সাথে যাকাত আদায় করতে বলেছেন।

ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্যে যাকাত অন্যতম। সাধারণত রমজান মাসে যাকাত প্রদান করা উত্তম। যাকাত দেওয়ার কতগুলো নিয়ম রয়েছে। কিন্তু অনেকেই এই সঠিক নিয়মে যাকাত আদায় করতে পারে না কারণ তারা সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানেনা।

আল্লাহ তাআলা পবিত্র কুরআনে যাকাত সম্পর্কে কতগুলো আয়াত নাযিল করেছেন এবং এই আয়াতগুলোতে যাকাত দেওয়ার সঠিক নিয়ম ও কোন কোন সম্পদের উপর যাকাত দিতে হয় এ বিষয়ে বর্ণনা করেছেন।

আল্লাহ তাআলার যাকাত প্রদানের এই নির্ধারিত সম্পদগুলোর মধ্যে নগদ অর্থও রয়েছে। অনেকে জানেনা যে কত টাকার জন্য কত টাকা যাকাত প্রদান করতে হয়। আর এ কারণে আমরা আমাদের এই পোস্টে আলোচনা করেছি এক লক্ষ টাকার যাকাত সম্পর্কে।

কেউ যদি কোন সম্পদের বা অর্থের যাকাত দিতে চায় তাহলে তাকে ওই অর্থের শতকরা 2.50 টাকা করে প্রদান করতে হবে। আর এক লক্ষ টাকার জন্য যদি শতকরা 2.50 টাকা করে যাকাত প্রদান করা হয় তাহলে মোট যাকাতের পরিমাণ হবে 2500 টাকা।

আল্লাহ তাআলা স্বর্ণের উপর যাকাত দিতে বলেছেন। কিন্তু তা একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ এর উপরে থাকলে। যেমন, কারো কাছে যদি 20 দিনারের উপরে স্বর্ণ থাকে তাহলে তাকে যাকাত প্রদান করতে হবে।

আর যদি 20 দিনারের কম স্বর্ণ থাকে তাহলে তাকে যাকাত প্রদান করতে হবে না। 1 দিনারে স্বর্ণ থাকে 4.25 গ্রাম। অতএব 20 দিনারে স্বর্ণ থাকে 85 গ্রাম। আমরা জানি যে, এক ভরি সমান হচ্ছে 11.66 গ্রাম।

1 ভরিতে 11.66 গ্রাম স্বর্ণ থাকলে 85 গ্রামে স্বর্ণ হবে 7.29 ভরি। কারো কাছে যদি 7.29 ভরি স্বর্ণ এক বছর যাবত নিজস্ব মালিকানায় থাকে তাহলে তাকে ওই স্বর্ণের বর্তমান বাজার মূল্যের মোট সম্পদের 2.50 শতাংশ যাকাত প্রদান করতে হবে।

আল্লাহ তাআলা সকলের উপর যাকাত ফরয করেননি। শুধুমাত্র যারা নিসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক তাদের উপর যাকাত ফরয করেছেন। নিসাব হচ্ছে দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি বাদে সাড়ে 7 তোলা পরিমাণ স্বর্ণ

ও সাড়ে 52 তোলা পরিমাণ রুপা বা এর বর্তমান বাজার মূল্য পরিমাণে সম্পদ এক বছর ধরে নিজের মালিকানায় থাকে তাকে নিসাব বলে। যাকাত দিতে হয় কয়েকটি নির্দিষ্ট সম্পদের উপর।

যেমন- নগদ গচ্ছিত অর্থ, সোনা-রুপার অলংকার, স্বর্ণ-রৌপ্য, মূল্যবান ধাতু, ব্যবসায়ী লভ্যাংশ, প্রাইজবন্ড, শেয়ার মার্কেট। যাকাত মানে হচ্ছে সম্পদ হালাল করার জন্য আল্লাহর পথে দান করা।

যে ব্যক্তি বেশি বেশি করে দান খয়রাত করে আল্লাহ তার সম্পদের পরিমাণ বৃদ্ধি করে দেন। আর বিশেষ করে কেউ যদি রোজার মাসে দান করে তাহলে আল্লাহ তার সওয়াব দ্বিগুণ করে দেন। তাই মানুষ রমজান মাসে যাকাত প্রদান করে থাকে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button