নামাজ

আসর নামাজ কয় রাকাত ও কিভাবে পড়তে হয়

আমাদের এই ওয়েবসাইটটিতে আসরের নামাজ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আসরের নামাজ কিভাবে পড়তে হবে,কত রাকাত এসকল বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি এই পোস্ট আপনার জন্য উপকারী হবে।

আসর নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

আসরের নামাজ মোট ৮ রাকাত অর্থাৎ চার রাকাত সুন্নত ও চার রাকাত ফরজ। ধারাবাহিকতার সাথে প্রত্যেক নামাজ আদায় করতে হয়।আসরের নামাজের ধারাবাহিকতা রয়েছে।

প্রথমে চার রাকাত সুন্নত এবং এরপর চার রাকাত ফরজ আদায় করতে হয়। এভাবে মোট  ৮ রাকাত নামাজ আদায় করতে হয়।

চার রাকাত সুন্নত- চার রাকাত ফরজ এর মতই। তবে এ ক্ষেত্রে প্রতি রাকাতে সূরা ফাতিহার সাথে অন্য যে কোন সূরা মিলিয়ে পড়তে হবে।এভাবে চার রাকাত সুন্নত শেষ করতে হবে।

আসরের চার রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ত

আসরের চার রাকাত ফরজ নামাজ পড়া অত্যাবশ্যকীয়। প্রত্যেক নামাজের আলাদা নিয়ত থাকে। আসরের চার রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ত হল :

(নাওয়াইতু আন্ উসাল্লিয়া লিল্লা-হি তাআলা আরবাআ রাকায়াতি সালাতিল আছরি ফারজুল্লা-হি তাআলা মুতাওয়াজজিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।)

দেখুনঃ ফজরের নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

নিয়ত বাংলাতেও করা যায়। বাংলায় নিয়তটি হলঃ (আমি কেবলামুখী হয়ে আল্লাহর ওয়াস্তে আসরের চার রাকাত ফরজ নামাজ আদায় করার জন্য দাঁড়ালাম আল্লাহু আকবার)।

আসরের নামাজ কিভাবে পড়তে হয়

চার রাকাত ফরজ- প্রথম রাকাতে জায়নামাজের দোয়া ও চার রাকাত ফরজের নিয়ত পাঠ করতে হবে।এরপর আল্লাহু আকবার বলে সানা পড়তে হবে।এরপর সূরা ফাতিহা পড়ে অন্য যে কোন একটি সূরা মিলিয়ে পড়তে হবে।সূরা পড়া শেষ হলে সুবহানা রাব্বিয়াল আজিম যেকোনো বিজোড় সংখ্যক বার পড়তে হবে। অতঃপর সামিয়া লিমান হামিদা রাব্বানা লাকাল হামদ বলে সিজদায় লুটিয়ে পড়তে হবে।সিজদায় গিয়ে সুবহানা রাব্বিয়াল আলা যেকোনো বিজোড় সংখ্যক বার বলতে হবে। আবার আল্লাহু আকবার বলে সেজদা দিতে হবে।

দেখুনঃ যোহরের নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

এভাবে দ্বিতীয় রাকাত শুরু করতে হবে।দ্বিতীয় রাকাতে নিয়ত বলার প্রয়োজন নেই।সূরা ফাতিহার পর যে কোন সূরা মিলিয়ে পড়তে হবে।বাকি প্রক্রিয়াগুলো প্রথম রাকাতের মতই।শুধুমাত্র সেজদার পর তাশাহুদ পাঠ করতে হবে।এভাবে দ্বিতীয় রাকাত শেষ করতে হবে।তৃতীয় রাকাতে কোন নিয়ত বলতে হবে না এবং সূরা ফাতিহার পর অন্য কোন সূরা মিলানোর প্রয়োজন নেই।

দেখুনঃ আসর নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

দ্বিতীয় রাকাতের মতই চলবে তবে এ ক্ষেত্রে সেজদা দেয়ার পর সোজা উঠে গিয়ে চতুর্থ রাকাত শুরু করতে হবে। অন্য রাকাত মতোই আদায় করতে হবে পার্থক্য শুধু সূরা ফাতিহার পর কোন কোন সূরা মিলানোর প্রয়োজন নেই।সিজদা দেওয়ার পর তাশাহুদ, দুরুদে ইব্রাহীম ও দোয়া মাসুরা পড়ে সালাম ফেরাতে হবে।সালাম ফিরানো শেষ হলে মোনাজাত ধরতে হয়।

আসরের চার রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ম

প্রত্যেক নামাজে প্রথমে জায়নামাজের দোয়া পড়ে নামাজ শুরু করতে হয়।আসরের চার রাকাত সুন্নত আদায়ের সময় প্রথমে জায়নামাজের দোয়া পড়তে হবে।এরপর চার রাকাত সুন্নতের নিয়ত বাধতে হবে।অতঃপর সানা পাঠ করতে হবে সানা পাঠ করা শেষ হলে সূরা ফাতিহা এবং সেইসাথে যেকোনো একটি সূরা মিলিয়ে পড়তে হবে।

দেখুনঃ মাগরিবের নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

সূরা পড়া শেষ হলে সুবহানা রাব্বিয়াল আজিম যেকোনো বিজোড় সংখ্যক বার পড়তে হবে। অতঃপর সামিয়া লিমান হামিদা রব্বানা লাকাল হামদ পড়ে সিজদা দিতে হবে।সেজদায় গিয়ে সুবহানা রাব্বিয়াল আলা যেকোনো বিজোড় সংখ্যক বার করতে হবে। আবার আল্লাহু আকবার বলে সিজদা দিতে হবে। এভাবে প্রথম রাকাত শেষ করে দ্বিতীয় রাকাতে শুরু করতে হবে। দ্বিতীয় রাকাতে নিয়ত করতে হবে না।সানা পাঠ করার প্রয়োজন নেই।বাকি নিয়মগুলো প্রথম রাতের মতই থাকবে শুধুমাত্র সিজদা দেওয়ার পর তাশাহুদ পাঠ করতে হবে।

দেখুনঃ এশার নামাজ কয় রাকাত ও কি কি

এভাবে দ্বিতীয় রাকাত শেষ করতে হবে।তৃতীয় রাকাতের নিয়ম দ্বিতীয় রাকাতের মতই। তবে এক্ষেত্রে তাশাহুদ পড়ার প্রয়োজন নেই। এরপর চতুর্থ রাকাত শুরু করতে হবে। চতুর্থ রাকাতের নিয়ম দ্বিতীয় রাকাতের মতই। তবে এ ক্ষেত্রে সেজদা দেয়ার পর তাশাহুদ, দুরুদে ইব্রাহীম এবং দোয়া মাসুরা পড়ে সালাম ফেরাতে হবে।আগে ডান পাশে এবং বাম পাশে সালাম ফেরাতে হবে।সবশেষে মোনাজাত ধরতে হবে। আশাকরি পোষ্টের মাধ্যমে আসরের নামাজ কিভাবে আদায় করতে হয় তা জানতে সক্ষম হবেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button