রকমারি

জমির দলিল খরচ ২০২২ [ক্লিক করে] নাল জমির দলিল খরচ দেখুন

আপনারা কি নতুন জমি ক্রয় করছেন অথবা জমির দলিল করার কথা ভাবছেন? তাহলে আপনার জমির দলিল করার ক্ষেত্রে আগে জানতে হবে দলিল করার নিয়মাবলী এবং তার খরচ সম্পর্কে।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে দলিল রেজিস্ট্রি খরচ কত হতে পারে। সে সকল তথ্য এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে তুলে ধরব। দলিল করার আগে আপনাকে জানতে হবে যে দলিল কি।

জমি, ফ্ল্যাট, অথবা প্লট ইত্যাদি ক্রয়-বিক্রয় দলিল সাব কবলা বিক্রয় দলিল বলে। এক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশন স্ট্যাম্প, শুল্ক স্থানীয় সরকার উৎস কর, অন্যান্য ফি দিয়ে একটি জমির দলিল  ফ্রী নির্ধারিত করা হয়।

এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে জমি দলিল করার সব যাবতীয় খরচ তুলে ধরবো। জমির দলিল করার ক্ষেত্রে আপনাকে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। হস্তান্তরিত সম্পত্তির দলিলে লিখিত এক শতাংশ রেজিস্ট্রেশন ফ্রি থাকবে।

দলিলের মূল্য 24000 টাকা বা তার কম হলে নগদ অর্থের 24 হাজার টাকার বেশি হলে পে-অর্ডারের মাধ্যমে স্থানীয় সোনালী ব্যাংক এর নির্দিষ্ট কোড অনুযায়ী টাকা জমা দিতে হবে।

হস্তান্তরিত সম্পত্তির দলিলে লিখিত মোট মূল্যের 1.5% টাকার স্ট্যাম্প শুল্ক দিতে হবে। এছাড়া স্থানীয় সরকার হিসেবে 3 শতাংশ মোট মূল্যের হিসাবের যত হয় তা জমা দিতে হবে। আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের

সামনে কিছুটা হলেও জমির দলিল খরচ সম্পর্কে ধারণা দিতে পেরেছি। জমি রেজিস্ট্রি করতে কি কি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র প্রয়োজন হয়। সেটা আপনাকে অবশ্যই জানতে হবে এই পোষ্টের মাধ্যমে।

আমি আপনাদের সামনে জমি রেজিস্ট্রেশন করার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আপনাদের সামনে তুলে ধরব। 2005 সালের 1 জুলাই থেকে জমির যেকোনো হস্তান্তরযোগ্য দলিল রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আইন অনুযায়ী যে দলিল রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হয়। যদি জমি রেজি না করা হয়। তখন সেই দলিল দিয়ে আপনি কোন দাবি করতে পারবেন না। সাব কবলা দলিল, হেবা দলিল।

দানপত্র দলিল, বন্ধকী দলিল, বায়না দলিল, বন্টননামা দলিল সহ বিভিন্ন হস্তান্তর দলিল রেজিস্ট্রি করতে হবে। দলিলের বিষয়বস্তু যে এলাকার এখতিয়ার এর মধ্যে রয়েছে। সেই এলাকার একটি রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল রেজিস্ট্রি করতে হবে।

আপনাকে জানতে হবে জমি রেজিস্ট্রি কত প্রকার এবং জমি কত উপায়ে রেজিস্টার করা যায়। এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের সামনে তা জানাচ্ছি। সুতরাং কথা না বাড়িয়ে বুঝুন।

বাংলাদেশের ভূমি আইন অনুযায়ী জমির দলিল মোট নয়টি। সেগুলো হচ্ছে সাব কবলা দলিল, দানপত্র দলিল, হেবা দলিল, হেবা বিল , এওয়াজ দলিল, বন্টননামা দলিল, অছিয়তনামা দলিল,

উইল দলিল এবং নাদাবী দলিল। কোন ব্যক্তি তার সম্পত্তি অন্যের কাছে বিক্রয় করে যে দলিল রেজিস্ট্রেশন করে তাকে সাব কবলা বলা হয়। এই দলিল স্টাম্প লেখার পর বিক্রেতা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে

উপস্থিত হয়ে দলিল রেজিস্ট্রি করে দিবেন। এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে এ সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দিতে পেরেছি। আর যদি কোনো তথ্য পেতে চান আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে জানান।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button