রকমারি

জমি রেজিস্ট্রি ফি ২০২২ (জমি রেজিস্ট্রি খরচ কত)

বিভিন্ন কারণে মানুষ জমি ক্রয়-বিক্রয় করে থাকে। আর এই জমি ক্রয়-বিক্রয় করতে হলে এই বিক্রয়কৃত জমির রেজিস্ট্রি করতে হয়। আজকে আমরা আমাদের এই পোস্টটি আলোচনা করেছি জমির রেজিস্ট্রি নিয়ে।

আপনারা যদি আমাদের এই পোস্টটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়েন তাহলে আপনারা জানতে পারবেন  কিভাবে জমি রেজিস্ট্রি করতে হয় এবং জমি রেজিস্ট্রি করতে কত টাকা খরচ হয় এই সকল বিষয়ে। জমি রেজিস্ট্রি করতে হলে কিছু নিয়ম অনুসরণ করতে হয়।

এছাড়াও জমি রেজিস্ট্রি করার ক্ষেত্রে ক্রেতা ও বিক্রেতাকে ওই বিক্রয়কৃত জমির জন্য কিছু ফি প্রদান করতে হয়। জমি রেজিস্ট্রি করার ক্ষেত্রে অনেক ব্যক্তিকেই বিভিন্ন প্রতারণার শিকার হতে হয় বা দুর্নীতির শিকার হতে হয়।

অনেকে আছেন যারা জমি ক্রয়-বিক্রয় করার জন্য জমি রেজিস্ট্রি করতে চান। কিন্তু অনেকেই জানেনা যে কতটুকু পরিমাণ জমি রেজিস্ট্রি করার জন্য কত টাকা খরচ হবে বা কত টাকা ফি প্রদান করা হবে তা কিভাবে জানা যায়।

আর এর জন্য অনেকেই ভূমি অফিসে কাগজপত্র নিয়ে ভোগান্তিতে পড়ে থাকে। এছাড়াও অনেকে অনেক দুর্নীতির শিকার হয়। যার জন্য তাকে জমি রেজিস্ট্রি করার ক্ষেত্রে অধিক ফি প্রদান করতে হয়।

তাই আমরা এই পোস্টে জমি রেজিস্ট্রি নিয়ে আলোচনা করেছি। আপনারা যদি জমি রেজিস্ট্রি ফি জানতে চান তাহলে আপনাদের প্রথমে জানতে হবে যে কোন খাতে কত পারসেন্ট ফি প্রদান করতে হবে।

আপনারা যদি এ বিষয়গুলো জানতে পারেন তাহলে আপনারা কতটুকু জমির জন্য কতটুকু পরিমাণে জমি রেজিস্ট্রি ফি প্রদান করতে হবে এই বিষয়ে জানতে পারবেন। আপনারা যদি আপনাদের জমির দলিল

রেজিস্ট্রি করার ক্ষেত্রে আপনার কত টাকা খরচ হবে এই বিষয়ে জানতে চান তাহলে আপনাদেরকে প্রথমে একটি ব্রাউজারে প্রবেশ করে দলিল দর্পণ নামক ওয়েবসাইটটি (http://www.dolil.gov.bd) লিখে সার্চ দিতে হবে।

এরপর এই ওয়েবসাইটিতে প্রবেশ করে ওয়েবসাইটিতে উল্লেখিত যাবতীয় তথ্য প্রদান করতে হবে। সেখানে আপনাকে আপনার বিক্রয়কৃত বা ক্রয়কৃত জমির মূল্যের দাম ও লিখতে হবে। লিখিত সকল তথ্য প্রদান করার পর ফলাফল

বাটনে ক্লিক করলে আপনার কোন খাতে কত পারসেন্ট ব্যয় হবে সেগুলো আপনারা দেখতে পারবেন। আর এই সকল খাতের ব্যয় এর পরিমাণ গুলো যোগ করলেই আপনারা জানতে পারবেন যে জমির রেজিস্ট্রি খরচ কত হবে।

বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় কমবেশি জমি বেচা-কেনা হয়ে থাকে। আর এই জমি বেচা কেনার ক্ষেত্রে অনেককেই অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হয়। এর জন্যই আমরা আমাদের এই পোস্টে জমি ক্রয় বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কিভাবে জমি রেজিস্ট্রি করতে হয়

এই সকল বিষয়ে আলোচনা করেছি। আপনারা যদি জমি রেজিস্ট্রি করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনাদেরকে জমি রেজিস্ট্রি অফিসে যোগাযোগ করতে হবে এবং এই রেজিস্ট অফিসে আপনার প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্ট প্রদান করতে হবে।

যেমন -বিক্রয়কৃত জমির সর্বশেষ রেকর্ড এর খতিয়ানা, ওই জমির খারিজের ফটোকপি এবং ওই জমির খাজনার রশিদ আর জমির ক্রেতা ও অভিজ্ঞতার ন্যাশনাল আইডি কার্ডের ফটোকপি ও তাদের এক কপি করে পাসপোর্ট সাইজের ছবি জমা দিতে হবে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button