স্বাস্থ্য

মেথির উপকারিতা ও অপকারিতা, খাওয়ার নিয়ম [চুলের, পুরুষের, মেয়েদের, ডায়াবেটিসে মেথির উপকারিতা]

মেথি তিতা স্বাদের জন্য অনেকের কাছে অপছন্দের একটি জিনিস। তবে মেথির পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা অনেক বেশি। গবেষণায় দেখা গেছে যে প্রতিদিন মেথি খেলে দূষিত পরিবেশ এবং ভেজাল খাবারের রাজ্যেও সুস্থভাবে বেঁচে থাকা সম্ভব।

আজকের পোষ্টে আমরা মেথির উপকারিতা, অপকারিতা, চুলের জন্য মেথির উপকারিতা, মুখের জন্য মেথির উপকারিতা ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। মেথি হজম শক্তি বৃদ্ধি করে

এবং শরীরে কার্বোহাইড্রেট আর সুগার শোষণ করে নেওয়ার ক্ষমতা আছে। মেথি নিয়মিত গ্রহণ করলে শরীরের ইনসুলিন নিঃসরণ এর মাত্রা বহুগুণ বৃদ্ধি পায়। মেথিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং বিভিন্ন রকমের উপাদান থাকে

যা রক্তের গ্লুকোজ মাত্রা কমাতে সাহায্য করে ফলে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকে। এক চামচ পরিমাণ বহু পুষ্টিগুণ থাকে এতে রয়েছে – 35 শতাংশ ক্যালোরি, 5 শতাংশ ম্যাগনেসিয়াম, 7 শতাংশ ম্যাঙ্গানিজ, 3 গ্রাম প্রোটিন

এবং 1 গ্রাম ফ্যাট। মেথির শরীরের ব্যাড প্রোটিন বা লিপো কমাতে সাহায্য করে। মেথির রসে সাপোনিস ও ডায়োজেনিন নামের যৌগ পদার্থ আছে যা মানুষের শরীরের হজমের পরিমাণ বাড়ায়।

মেথিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা হজম ক্ষমতা বাড়ায়। মেথির উপকারিতা পাশাপাশি এর কিছু উপকারিতাও রয়েছে সেগুলো হলো- অতিরিক্ত মেথি সেবনের

ফলে ব্লাড সুগারের পরিমাণ কমে যেতে পারে। মেথি দীর্ঘদিন ধরে খাওয়ার ফলে শরীর থেকে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয় যা অস্বস্তিদায়ক। গর্ভবতী মহিলাদের মেথি দানা ভেজানো জল দীর্ঘদিন ধরে খেয়ে থাকলে

সময়ের আগেই শিশু জন্ম দেয়, এমনকি গর্ভপাতের মতো ঘটনাও ঘটতে পারে। মেথিতে কৌমারী থাকে রক্ত জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করে, তাই যাদের রক্ত পাতলা তাদের ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে মেথি খাওয়া উচিত।

চুল পড়ার সমস্যা এবং চুলের যত্নে মেথির ব্যবহার অত্যন্ত কার্যকর। 50 গ্রাম মেথি 200 থেকে 300 মিলি পানিতে সারারাত ভিজিয়ে রেখে সকালে সেই পানি ছেঁকে পান করা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও নিকোটিনিক অ্যাসিড রয়েছে যা চুলকে ভেতর থেকে পুষ্টি যোগায় এবং চুলকে মজবুত করে। মেথি চুলের অকালপক্কতা রোধ করতে সাহায্য করে। নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে এবং চুল ঘন করে।

মেথি স্ক্যালপের শুষ্কতা দূর করতে সাহায্য করে, মাথায় খুশকির যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেয়। মেথি নিয়মিত ব্যবহারে চুল ঝলমলে ও সিল্কি হয়। মাথার ত্বকে রক্ত প্রবাহ বজায় রাখে চুলকে পুষ্টিকর করে।

চুল পড়া রোধে মেথি অনেক কার্যকরী ভূমিকা পালন করে মেথিতে ফলিক এসিড, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, ভিটামিন সি এবং মিনারেল থাকে যা চুল পড়া দূর করার জন্য অনেক ভালো প্রতিকার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

মেথি ভিটামিন-সি, ভিটামিন-এ সমৃদ্ধ বাড়িতে তৈরি মেথির ফেস ক্রিম ব্যবহার করলে মুখের দাগ, আঙ্কেল বা রোদে পোড়া দাগ এবং অন্যান্য ক্ষতিকর দাগ ধীরে ধীরে মিলিয়ে যায়,

ত্বক আগের চেয়ে অনেক বেশি উজ্জ্বল, টানটান, মসৃণ হবে। তাছাড়া মেথি ত্বকের আদ্রতা যোগান দেয়। মেথি ত্বকের প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে, ত্বকের মরা কোষ দূর করে এতে ত্বক নরম ও মসৃণ হয়,

মুখের কালচে ভাব দূর করতে সাহায্য করে। মেথি গভীর থেকে পরিষ্কার করে ত্বকের লোমকূপ খুলে দিয়ে ভেতর থেকে ময়লা বের করে আনে। যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য মেথির ফেস ক্রিম ব্যবহার করা অনেক উপযোগী।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button