রমজান ২০২২

শেরপুর জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০২২ [ছবি এবং পিডিএফ ডাউনলোড করুন]

সুপ্রিয়া রোজাদার বন্ধুরা, আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচির আলোচনা করব। দেখতে দেখতে চলে এসেছে খোশ আমদেদ মাহে রমজান। মুসল্লীরা নিশ্চয় নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সেহরী এবং ইফতারের গ্রহণ করে

এবং একজন মুসল্লির সেই সময় সূচি অনুযায়ী এবং ইফতার করা উচিত। কিন্তু অনেকেই সেহরী এবং ইফতারের সময়সূচি জানেনা। তবে প্রত্যেক মুসল্লিদের অতীত সেহরী করা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করা উচিত।

আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে বাংলাদেশের 64 জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি আলোচনা-করবো। ছাড়া আপনার আমাদের ওয়েবসাইট থেকে জেলা ভিত্তিক সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি পাচ্ছেন।

সেটা ডাউনলোড করে নিতে পারবেন খুব কম সময়ের মধ্যে। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত তথ্য আলোচনা করব।শেরপুর জেলার সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচি জানতে হলে আমাদের ওয়েবসাইটে আসুন।

আমরা ধারাবাহিকভাবে সকল তথ্য উপস্থাপন করি। রমজান মাস প্রত্যেক মুসলমানের জন্য জনপ্রিয় এবং পবিত্র মাসে মাসে সকল মুসল্লিগণ সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার

এবং স্ত্রীর সাথে যৌনসঙ্গম থেকে বিরত থাকে একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য। তাই আপনি যেকোন প্রান্তে বসবাস করেন না কেন।অবশ্যই আপনাকে সিয়াম সাধনা করতে হবে এবং সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি অনুযায়ী সেহরি করতে হবে।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। যেটা মূলত শেরপুর জেলার জন্য প্রযোজ্য। আপনারা জানেন যে, 7 মার্চ  ইসলামিক ফাউন্ডেশন ইতোমধ্যে 2022 সালের

আজকের সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০২২

অর্থাৎ 1443 হিজরীর রমজান মাসের ক্যালেন্ডার প্রকাশ করেছে। কিন্তু আপনারা জানেন না 7 মার্চের রমজান মাসের ক্যালেন্ডার। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে সকল তথ্য জানাবেন। আশা করি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে।

রমজান মাসের শেরপুর জেলার সেহরীর সতর্কতামূলক শেষ সময় ভোর 4:30, ফজরের ওয়াক্ত শুরু হবে ভোর 4:36 এবং ইফতারের সতর্কতামূলক শেষ সময় 6:18, তাহলে বন্ধুরা,

এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি শেরপুর জেলার সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করলাম। আরও কোন তথ্য জানতে চাইলে আমাদের ওয়েবসাইটের কমেন্টে জানান।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক রমজানের সময়সূচী সম্পর্কে আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে জানাতে চাচ্ছি। আশা করি আপনাদের কাছে খুবই ভালো লাগবে। ঢাকা থেকে শেরপুর জেলার সেহরির সময় পার্থক্য 2 মিনিট

এবং ইফতারের সময় পার্থক্য – 1 মিনিট করা হয়েছে। রমজান মাসের সময়সূচি পাশাপাশি আমরা পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের সময়সূচী নিয়ে কাজ করছি। আর সেই সময়সূচি ও বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নামাজের সময়ের সাথে মিল রেখে

অর্থাৎ সেটি থেকে প্রতি জেলার জন্য আলাদা আলাদা নামাজের ক্যালেন্ডার তৈরি করেছে। সেটা আপনার আমাদের ওয়েবসাইট থেকে খুব কম সময়ের মধ্যে দেখে নিতে পারেন। তাহলে বন্ধুরা, কেমন লাগলো আজকের আর্টিকেল।

কমেন্ট করে জানাবেন। আপনারা কোন জেলায় অবস্থান করছে সেটা আমাদের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে জানান। আমরা সেভাবে জেলার ইফতারের সময়সূচি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button