রমজান ২০২২

যাকাত ক্যালকুলেটর ২০২২ বাংলাদেশ [যাকাত ক্যালকুলেশন করতে এখানে ক্লিক করুন]

ইসলামের পাঁচটি রুকনের মধ্যে যাকাত অন্যতম। কোন ব্যক্তির নিকট নিসাব পরিমাণ সম্পদ থাকলে সেই ব্যক্তিকে যাকাত দিতে হয়। নিসাব পরিমাণ সম্পদ হল সাড়ে সাত তোলা স্বর্ণ বা সাড়ে 52 তোলা রুপার সমপরিমাণ অর্থ।

নিসাব পরিমাণ সম্পদ চল্লিশ ভাগের এক ভাগ যাকাত দিতে হয়। প্রতি বছর রমজান শেষ হবার আগেই যাকাত আদায় করা উত্তম। যাকাত আদায়ের মাধ্যমে সম্পদের পবিত্রতা অর্জিত হয়ে থাকে। যাকাত আদায়ের মাধ্যমে সম্পদ বৃদ্ধি পায় এবং সম্পদে বরকত আসে।

আল্লাহর নৈকট্য লাভ করার অন্যতম একটি হলো যাকাত আদায় করা। আমাদের প্রত্যেকের উচিত যাকাতের নিয়মগুলো অনুসরণ করে যাকাত আদায় করা। আজকের পোস্টে যাকাত ক্যালকুলেটর, স্বর্ণের যাকাতের হিসাব ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

যাকাত ফরজ ইবাদত। যাকাত আদায়ের কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম রয়েছে। নগদ টাকার এবং  স্বর্ণের হিসাব সঠিকভাবে করে যাকাত আদায় করতে হয়। হিসেবের হেরফের হলে যাকাত আদায় হয় না।

এর জন্য প্রয়োজন যাকাত ক্যালকুলেটর। আপনাদের মধ্যে অনেকেই যাকাতের হিসাব করতে সমস্যায় ভোগেন। তারা খুব সহজেই যাকাত ক্যালকুলেটর এর মাধ্যমে যাকাতের হিসাব বের করে যাকাত আদায় করতে পারবেন।

আমাদের আজকের পোস্টে যাকাত ক্যালকুলেটর এপ্স এর লিংক শেয়ার করা হয়েছে। লিংকে ক্লিক করে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে খুব সহজেই যাকাতের হিসাব করতে পারবেন। যাকাত ক্যালকুলেটর অ্যাপস

এর মাধ্যমে যাকাতের অংকটি বসিয়ে কয়েক সেকেন্ডেই যাকাতের হিসাব দেখা যায়। নিচের লিংকটি শেয়ার করা হয়েছে। সুতরাং আর দেরি না করে অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিন।

স্বর্ণের উপর যাকাত ফরয হয় তবে স্বর্ণের পরিমাণ যদি সাড়ে সাত ভরি বা তার চেয়ে বেশি হয়। সেক্ষেত্রে স্বর্ণের হিসাব করে যাকাত দিতে হয়। তবে অবশ্যই সেই স্বর্ণ ব্যক্তির নিকট এক বছর বা তার চেয়ে বেশি সময় মালিকানাধীন থাকতে হবে।

মোট স্বর্ণের চল্লিশ ভাগের এক ভাগ যাকাতের জন্য বরাদ্দ রাখতে হয়। উদাহরণস্বরূপ কোন ব্যক্তির নিকট যদি দশ ভরি স্বর্ণ থাকে তবে 10 ভরি স্বর্ণের সাথে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য গুন করে হিসাব করতে হয়।

যেহেতু প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য ০.০২৫ টাকা কাজেই দশ ভরি স্বর্ণের মূল্য প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য এর সাথে গুণ করে সেই টাকার সমপরিমাণ যাকাত আদায় করতে হয়। অনেকেই আছে যারা স্বর্ণের যাকাতের হিসাব করতে পারে না।

আশা করি আজকের পোস্টটি পড়ে তারা সহজেই স্বর্ণের যাকাতের হিসাব বের করে যাকাত আদায় করতে সক্ষম হবে। কোন ব্যক্তির নিকট যদি সাড়ে সাত তোলা স্বর্ণ বা সাড়ে 52 তোলা রুপার মূল্য বা তার চেয়ে বেশি পরিমাণ অর্থ থাকে

তবে তার ওপর যাকাত ফরয হয়ে যাবে।নগদ অর্থের প্রায় চল্লিশ ভাগের এক ভাগ যাকাতের জন্য নির্ধারণ করা হয়। মোট অর্থের 2.50 পারসেন্ট যাকাত হিসেবে দিতে হয়।

অর্থাৎ কোন ব্যক্তির নিকট যদি 100 টাকা থাকে তবে তাকে যাকাত দিতে হবে 2.50 টাকা, 200 টাকা থাকলে যাকাত দিতে হবে পাঁচ টাকা। এভাবে নিসাব পরিমাণ সম্পত্তির অর্থের হিসাব করে যাকাত আদায় করতে হয়।

আপনাদের মধ্যে যারা নগদ অর্থের যাকাত এর হিসাব জানতেন না। আশা করি তারা পোষ্টের মাধ্যমে নগদ অর্থের যাকাত সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়েছেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button