রমজান ২০২২

যাকাতের নিসাব কত টাকা ২০২২ এবং স্বর্ণের যাকাতের নিসাব কত [ক্লিক করে দেখে নিন]

ইসলামের পাঁচটি খুঁটি রয়েছে। এগুলো হলো- কালেমা, নামাজ, রোজা, হজ ও জাকাত। পঞ্চম খুঁটি হল যাকাত। যাকাত মানে পবিত্রতা। যাকাত দেওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে। একজন মুসলমান প্রতিবছর যাকাত দিলে

সম্পদের পরিমাণ কমে না বরং বৃদ্ধি পেতে থাকে। এছাড়াও সম্পদের বরকত হাসিল হয়। যে ব্যক্তি যাকাত দেয় তার ভেতরের ঈমান বৃদ্ধি পায়। সে আল্লাহর অধিক প্রিয় বান্দা হয়ে যায়। যাকাত দেয়ার মাধ্যমে চরিত্রের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়।

আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা জানেননা যাকাতের নিসাব কত টাকা, যাকাতের হিসাব করার নিয়ম ইত্যাদি। আমাদের আজকের আর্টিকেলে যাকাত সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য আলোচনা করা হয়েছে।

পোস্টের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়লে আশা করা যায় আপনারা অনেক কিছু জানতে পারবেন। সুতরাং আমার মতে আপনাদের উচিত হবে পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়া। যাদের উপর যাকাত ফরজ তাদের প্রতি বছর রমজান শেষ হবার আগেই যাকাত দিতে হয়।

স্বর্ণের যাকাতের নিসাব কত

যাকাত দিতে হলে যাকাতের নিসাব এর পরিমাণ জানার প্রয়োজন হয়। আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা  যাকাত দিতে চান কিন্তু যাকাতের নিসাব সম্পর্কে জানেন না। আমাদের আজকের আর্টিকেলটি পড়লে আপনারা যাকাতের নিসাব

এর পরিমাণ সম্পর্কে জানতে পারবেন। কারণ আজকের আর্টিকেলে যাকাতের নিসাব এর পরিমাণ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। নিচে যাকাতের নিসাব এর পিডিএফ আকারে দেওয়া হয়েছে।

যাদের লাগবে তারা চাইলে ডাউনলোড করে সংগ্রহ করতে পারেন। সুতরাং আর দেরি না করে সংগ্রহ করে নিন। ইসলামের পাঁচটি খুটির মধ্যে যাকাত অন্যতম। কোন মুসলমানের যদি পরিমাণমতো সম্পত্তি থাকে তবে অবশ্যই তার ওপর যাকাত ফরজ হয়।

যাকাতের নিসাব কত টাকা ২০২২

কোন মুসলমানের যে সম্পত্তির উপর যাকাত ফরজ হয়  সে সম্পত্তির 40 ভাগের একভাগ যাকাতের জন্য বরাদ্দ করে রাখতে হবে। সাধারণত দশ ভাগের এক ভাগ 2.5 শতাংশ হয়।

কারো সম্পত্তির পরিমাণ যদি 100 টাকা হয় তবে তাকে যাকাত দিতে হবে 2 টাকা 50 পয়সা। কারো সম্পত্তির পরিমাণ যদি 2000 টাকা হয় তবে তাকে যাকাত দিতে হবে 50 টাকা। এভাবে হিসাব করে প্রতিবছর মুসলমানদের যাকাত দিতে হয়।

যাকাত দিলে সম্পত্তির পরিমাণ কমে না বরং বৃদ্ধি পায়। আপনাদের মধ্যে অনেকেই যাকাতের হিসাব করার নিয়ম জানতেন না। আশাকরি আমাদের আজকের আর্টিকেলটি পড়ে যাকাতের হিসাব সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পেয়েছেন।

যাকাত সম্পর্কে এমন আরও অনেক কিছু জানতে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করবেন। যাকাত ইসলামের পাঁচটি খুটির মধ্যে অন্যতম।  কোন মুসলমানের নিকট স্বর্ণ থাকলে অবশ্যই তার উপর যাকাত ফরজ

তবে স্বর্ণ ২০ দিনার এর কম হলে যাকাত ফরজ নয়। কোন ব্যক্তির নিকট যদি ২০  দিনার স্বর্ণ তার কাছে এক বছর যাবত মালিকানাধীন থাকে তবে তার জন্য  পরিমাণ ভাবে যাকাত দিতে হয়।

১ দিনার স্বর্ণ যদি  ৪.২৫ গ্রাম হয় তবে 20 দিনের স্বর্ণ হবে ২০×৪.২৫=৮৫ গ্রাম স্বর্ণ। অর্থাৎ ৮৫ গ্রাম স্বর্ণে (৮৫÷১১.৬৬) = ৭.২৯ ভরি স্বর্ণ থাকে। এভাবে স্বর্ণের হিসাব করে পরিমাণমতো যাকাত দিতে হবে।

যাকাত দিলে সম্পদের পবিত্রতা বৃদ্ধি পায়। যাকাত দেওয়ার মাধ্যমে একজন মুসলিমের ঈমান বৃদ্ধি পায়।আপনাদের মধ্যে অনেকেই স্বর্ণের যাকাত দেওয়ার নিয়ম জানতেন না। আশা করি পোস্টটি পড়ে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button