ইসলামিক

ছাগল দিয়ে আকিকার নিয়ম (বিস্তারিত এখানে দেখুন)

ছাগল দিয়ে আকিকার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? অথবা আকিকার গোশত ভাগ করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? তাহলে এই পোস্টটি আপনার জন্যই। আমরা আজকে এই পোস্টটিতে এই সকল বিষয়ে আলোচনা করব।

তাছাড়া আপনি যদি এই পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়েন তাহলে জানতে পারবেন আকিকা কতদিনে করতে হয়। তাই দেরি না করে প্রতি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

বাংলাদেশ একটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ। বাংলাদেশের অনেক মানুষ আকিকার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানে না। তাই অনেকে আকিকার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানার জন্য অনলাইনে সার্চ দিয়ে থাকে।

আজকে আমরা তাদের জন্যই এই পোস্টটি প্রকাশ করেছি। আপনি যদি আকিকার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চান তাহলে পোস্টটি পড়ুন।ইসলামের নিয়ম অনুযায়ী সন্তান জন্মগ্রহণের পর আকিকা দিতে হয়।

সন্তান জন্মগ্রহণের পর আকিকা দেওয়া বাবার উপর দায়িত্ব বর্তায়। আকিকা দেওয়া সন্তানের হক। তাই প্রত্যেক পিতা মাতারই উচিত সন্তান হওয়ার পর নির্দিষ্ট সময়ে আকিকা দেওয়া।

আকিকা দেওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে আলেমগণ থেকে আমরা জানতে পারি যে, সন্তান জন্মগ্রহণের পর সন্তানের জন্য চার পা বিশিষ্ট প্রাণী দিয়ে আকিকা দিতে হয়। সেটি চাইলে আপনি গরু দিয়েও দিতে পারবেন।

অথবা ছাগল দিয়েও দিতে পারবেন। তবে ছাগল দিয়ে দেওয়া উত্তম। আপনি আপনার সন্তানের আকিকা ছাগল দিয়ে দিতে পারেন। আলেমদের ভাষ্যমতে সন্তান জন্মগ্রহণের পর আকিকা দিতে হয়।

ছেলে সন্তানের জন্য দুটি প্রাণী এবং মেয়ে সন্তানের জন্য একটি প্রাণী কুরবানী করতে হয় আল্লাহর রাস্তায়। তাছাড়া সন্তান জন্মগ্রহণের পর সাত দিনের দিন সন্তানের মাথার চুল কেটে সেই চুল পরিমাণ রুপার

অর্থ গরিব-দুঃখীদের মধ্যে দান করতে হয়। আকিকা দেওয়া প্রত্যেক মুসলমানের জন্য কর্তব্য এবং সেই আকিকা সময়মতো দেওয়া উচিত। অন্যথায় আকিকার সঠিক সুন্নত পালন হয় না।

আকিকা দেওয়ার পর সেই গোশত গরিব-দুঃখী, আত্মীয়স্বজন এবং সন্তানের পিতা-মাতা সবাই খেতে পারবেন। এক্ষেত্রে আলেমগণ বলে থাকেন, আকিকার গোস্ত তিন ভাগ করতে হবে এমন কোন নিয়ম নেই।

গরীব দুঃখী, আত্মীয়-স্বজন এবং পিতা-মাতা সবাই মিলে খেতে পারবেন। আকিকার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চাইলে আপনি আপনার এলাকার বড় আলেমদের সাথে কথা বলতে পারেন।

অথবা আপনি চাইলে ইউটিউবে বড় বড় আলেমদের বিভিন্ন বক্তব্য শুনতে পারেন। তাহলে এ বিষয়ে আপনার বিস্তারিত ধারণা হয়ে যাবে। আমাদের সমাজে অধিকাংশ মানুষ আকিকার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানেনা।

সেজন্য অনেক মানুষ আকিকা দেয় না আবার যারা দেয় তারা সঠিক নিয়ম দেয় না। তাই আমাদের উচিত আকিকার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানা। কিছু আলেমদের মতে আকিকা সপ্তম দিনে দিতে হয়

এবং অধিকাংশ আলেমগণের মতে সন্তান জন্মের ৭ দিনের দিন আকিকা দেওয়া উচিত। যদি সাত দিনের দিন আকিকা দেওয়া সম্ভব না হয় তাহলে 14 দিন অথবা 21 দিনেও আকিকা দেওয়া যায়।

এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে উত্তম সাত দিনের দিন আকিকা দেওয়া। তাই আমাদের যদি সম্ভব হয় সাত দিনের দিন সন্তানের জন্য আকিকা দেওয়া উচিত।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button