ব্যবসার আইডিয়া

ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা আইডিয়া এবং পণ্যের তালিকা

সুপ্রিয় বন্ধুরা, আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে ইলেকট্রিক ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবসা আইডিয়া সম্পর্কে আলোচনা করবো। ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ভেতর হতে পারে মোবাইল অথবা অন্যান্য ইলেকট্রনিক ডিভাইস।

 আপনারা যারা ইলেকট্রনিক্স ব্যবসার কথা ভাবছেন। আমাদের এই পোস্টটি আসলে আমাদের জন্য। এ পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের সামনে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব।

আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়লে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পাবেন।  আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়লে  বুঝতে পারবেন।

ইলেকট্রনিক পণ্য সমূহ যেমন টিভি, ফ্রিজ, বৈদ্যুতিক বাতি, পাখা, কম্পিউটার ইত্যাদি বিভিন্ন জিনিস এখন বাজারে খুব জনপ্রিয়। বর্তমান ডিজিটাল যুগে আমরা ইলেকট্রিক বা ইলেকট্রনিক্স জিনিস

ছাড়া আমাদের জীবন কল্পনা করতে পারি না। আপনারা এ ব্যবসা গুলো শুরু করতে পারেন। ইলেকট্রনিক ব্যবসা করতে পারেন দুই ভাবে। একটি হচ্ছে ডিলারশিপ এর ব্যবস্থা রয়েছে ও খুচরা পণ্য বিক্রির ব্যবসা।

ডিলারশিপ ব্যবসা করলে কোন একটা নির্দিষ্ট কোম্পানির পণ্যের বিক্রি এবং বন্টনের দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে এর জন্য নির্দিষ্ট কোম্পানির সাথে চুক্তিবদ্ধ হতে হয়। তবে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা করার

ক্ষেত্রে খুচরা পণ্য বিক্রির ব্যবসা শুরু করার উপযুক্ত। খুচরা পণ্য বিক্রি ব্যবসা শুরু করার ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করতে পারেন।  অল্প পরিমাণে মূলধন দিয়ে ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে।

সেক্ষেত্রে 5 লাখ টাকা থেকে দশ লাখ টাকা দিয়ে প্রথমে ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে। দোকান ভাড়া থেকে শুরু করে পাইকারি ভাবে পণ্য ক্রয়, দোকান সাজানো, স্টোর রুম রাখা, এডভারটাইজমেন্ট করা

এবং যদি কোন কর্মচারী নিযুক্ত করা হয়। সব কিছুর জন্য পর্যাপ্ত অর্থ মজুদ রাখতে হবে। আপনি চাইলে ইলেকট্রনিক্স মালামাল এর ব্যবসা শুরু করতে পারেন। কিন্তু আপনাকে জানতে হবে যে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের গুলো কিভাবে বিক্রি করবেন।

ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে মূল ভালো পরিমাণ মূলধন নিয়ে ব্যবসায় জড়িত হতে হবে। ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা শুরু করার আগে অবশ্যই ইলেকট্রিক জিনিস সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে।

যখন দোকানে ক্রেতা আসবে। তখন সে সম্পর্কে তাদের একটি স্বচ্ছ ধারণা দিতে হবে। এতে এমনি গ্রাহকরা ওই পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে আরো বেশি আগ্রহী হয়ে উঠবে। আশা করে এ পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে বিস্তারিত ধারণা দিতে পেরেছি।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে ইলেকট্রিক পণ্যের ব্যবসা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব। ইলেকট্রনিক্স পণ্যের ব্যবসা শুরু করার আগে একটি উপযুক্ত স্থান বাছাই করা সবচেয়ে জরুরি।

উপযুক্ত স্থানে দোকান দিতে পারলে ব্যবসায় উন্নতি ও দ্রুত হয়। স্থান বাছাই করতে হবে এমন জায়গায়, যেখানে কাস্টমার আসা যাওয়া সুবিধা হয়। জনবহুল জায়গায় ও যাতায়াতের সুবিধা আছে

এমন স্থান বাছাই করতে হবে দোকানের জন্য। এক্ষেত্রে মোটামুটি পাঁচ থেকে দশ লাখ টাকা দিয়ে ব্যবসা শুরু করলে সে ব্যবসা ভালো লাভবান হওয়া যায় সব ধরনের ইলেকট্রনিক্স পণ্য দোকানে রাখতে হবে।

এক্ষেত্রে দোকানের স্থান নির্বাচন দোকানের নাম এবং কাস্টমারের সাথে আরো বেশি বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখলে এই ব্যবসায় ভালো  লাভবান হওয়া যায়। আশা করি বুঝাতে পেরেছি।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button