নামাজ

মহিলাদের এশার নামাজ পড়ার নিয়ম [মেয়েদের নামাজের সঠিক পদ্ধতি দেখুন]

ইসলাম পাঁচটি খুটির উপর প্রতিষ্ঠিত। তারমধ্যে নামাজ অন্যতম। ঈমানের পরেই নামাজের স্থান। ঘর তৈরি করতে যেমন খুটির প্রয়োজন হয় তেমনি একজন মুসলিমের দ্বীন প্রতিষ্ঠা করতে হলে নামাজ আদায় করা প্রয়োজন।

প্রত্যেকটি মুসলিমের জন্য নামাজ ফরজ করা হয়েছে। প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ এবং নারীর জন্য নামাজ আদায় করা অত্যাবশ্যক। নামাজ যারা পড়ে তারা অন্যরকম প্রশান্তি লাভ করে।

দিনের শুরুটা যদি নামাজ দিয়ে হয় তবে সারাদিনই ভালো যায়। নামাজ সম্পর্কে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘বান্দা ও কুফরির মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে নামাজ ত্যাগ করা।’

আপনাদের মধ্যে অনেকেই এশার নামাজ আদায় করার নিয়ম জানেন না। তাই আমরা আজকের পোস্টে এশার নামাজ আদায় করা, বেতের নামাজ আদায় করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি। পোস্টটি পড়লে উপকৃত হবেন।

প্রত্যক মুসলমানের জন্য পাচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ।পুরুষ এবং নারীদের নামাজের কিছুটা ব্যতিক্রমতা আছে।আজকে আমরা মহিলাদের এশার নামাজ এর নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি।

১. প্রথমে দাঁড়িয়ে জায়নামাজের দোয়া পাঠ করতে হবে। এরপর এশার চার রাকাত ফরজ নামাজের নিয়ত করে আল্লাহু আকবার বলে বুকে হাত দিতে হবে।

২. অতঃপর সূরা ফাতিহার সাথে অন্য যেকোনো একটি সূরা মিলিয়ে পড়তে হবে। ৩. এরপর হাটু বরাবর হাত রেখে হালকা নিচু হয়ে সুবহানা রাব্বিয়াল আজিম বিজোড় সংখ্যক বার পাঠ করতে হবে।

৪. অতঃপর সামিয়া লিমান হামিদা রব্বানা লাকাল হামদ বলে সিজদা দিতে হব। সিজদায় গিয়ে সুবহানা রাব্বিয়াল আলা বিজোড় সংখ্যক বার পাঠ করতে হবে। এভাবে দুইবার সেজদা দিতে হবে। বাকি রাকাতগুলো একইভাবে আদায় করতে হবে।

৫. চতুর্থ রাকাতে সালাম ফিরানোর পর মোনাজাত ধরে নামাজ শেষ করতে হবে। এশার নামাজের বাকি রাকাত গুলো একই ভাবে আদায় করতে হয়। আশাকরি আমাদের আজকের পোস্টের মাধ্যমে আপনার অনেকেই জানতে পেরেছেন।

দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের সর্বশেষ নামাজ হলো বেতর নামাজ। বিতর নামায তিন রাকাত। অনেকে বেতর নামাজ আদায় করার নিয়ম জানেনা। বেতর নামাজ আদায় করার জন্য অবশ্যই অজু থাকতে হয়।

প্রথম দুই রাকাত বিতর নামাজ ফরজ নামাজের মতই। তৃতীয় রাকাতে সূরা ফাতিহার সঙ্গে অন্য যেকোনো একটি সূরা মিলাতে হবে। এরপর আল্লাহু আকবার বলে বুকে হাত দিয়ে দোয়া কুনুত পড়তে হবে।

দোয়া কুনুত পড়া শেষ হলে রুকু করতে হবে। এরপর সেজদা করতে হবে। সেজদার পর তাশাহুদ, দুরুদ মাসুরা, পড়ার পর সালাম ফেরাতে হবে। এভাবে বেতর নামাজ শেষ হয়। আশা করি আজকের পোস্টটি পড়লে আপনারা বেতর এর তিন রাকাত নামাজ সহজে আদায় করতে পারবেন।

পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের মধ্যে ফজর এবং এশার নামাজের ফজিলত অনেক বেশ।  এশার নামাজ সম্পর্কে আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি জামাতের সঙ্গে এশার নামাজ আদায় করল,

সে যেন অর্ধেক রাত পর্যন্ত (নফল) নামাজ আদায় করল। আর যে ব্যক্তি ফজরের নামাজ জামাতের সঙ্গে আদায় করল সে যেন সারা রাত জেগে নামাজ আদায় করল।’ (মুসলিম, হাদিস : ১৩৭৭)

এশার নামাজ মোট 17 রাকাত এরমধ্যে চার রাকাত ফরজ, চার রাকাত সুন্নত, দুই রাকাত সুন্নত, দুই রাকাত নফল, তিন রাকাত বেতর এবং দুই রাকাত হালকি নফল।

আপনারা যারা যারা এশার নামাজ কত রাকাত এবং কি কি জানেন না আশা করি তারা আজকের পোস্টটি পড়ে জানতে পেরেছেন। নামাজ সম্পর্কে এমন আরও অনেক তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করবেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button