টেকনোলজি

নেটফ্লিক্স সাবস্ক্রিপশন মূল্য বাংলাদেশ (নেটফ্লিক্স চার্জ)

অন্যান্য দেশগুলোর মতো বর্তমানে বাংলাদেশেও netflix এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে, বর্তমানে এর সাবস্ক্রিপশন সংখ্যা অনেক বেশি। আজকের পোস্টে আমরা বাংলাদেশে নেটফ্লিসে সাবস্ক্রিপশন, নেটফ্লিক্স এর ব্যবহার,

নেটফ্লিক্সে ইন্টারনেট ও ডেটার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে আলোচনা করেছি। বিগত কয়েক বছরে বাংলাদেশের তরুন সমাজ এবং সিনেমা প্রেমী মানুষদের মাঝে নেটফ্লিক্স ভীষণ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

pistrategy.org এর ভাষ্যমতে বাংলাদেশে বর্তমানে নেটফ্লিক্স এর সক্রিয় সাবস্ক্রাইবার এর সংখ্যা প্রায় ২০০,০০০ জন। তবে অন্যান্য দেশের তুলনায় এই সংখ্যা অনেক কম মনে হলেও এর অধিকাংশ ব্যবহারকারী সক্রিয় হয়েছেন বিগত দুই বছরের মাঝে।

এছাড়া বাংলাদেশ থেকে নেটফিস ব্যবহারে রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট প্রতিবন্ধকতা। এর মধ্যে প্রধান সমস্যাটি হল পেমেন্টের। কিছুটা অসুবিধা থাকলেও যে একেবারে সম্ভব না এমনটা নয়।

ডুয়েল কারেন্সি সম্পূর্ণ ডেবিট /ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সহজেই মাসে নির্দিষ্ট সময়ের পেমেন্ট করতে পারবেন। প্রতি ৩০ দিন পর পর ক্রেডিট/ ডেবিট কার্ড থেকে নির্ধারিত পরিমান ডলার নেটফ্লিক্স এর বিল হিসেবে পরিষদ করে দিতে হবে।

বাংলাদেশের নেটফিক্সের বর্তমান সাবস্ক্রিপশন ফি সর্বনিম্ন ৩.৯৯ মার্কিন ডলার থেকে সর্বোচ্চ ১১.৯৯ মার্কিন ডলার পর্যন্ত। নেটফিক্সের প্যাকেট সমূহ মাসিক- মোবাইল – USD=3.99, ব্যাসিক-USD=7.99, স্ট্যান্ডার্ড- USD=9.99, প্রিমিয়াম-USD=11.99

নেটফ্লিক্স এর মাধ্যমে আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড আই এস কিংবা উইন্ডোজ ১০ ডিভাইস থেকে অনলাইনে ইন্টারনেট সংযোগের সাহায্যে বিভিন্ন ভিডিও শো সিনেমা দেখতে পারবেন অথবা ডাউনলোড করে অফলাইনেও দেখতে পারবেন।

এখানে আপনার কনটেন্টগুলো অঞ্চল ভেদে পরিবর্তন হয় কিংবা সময়ের সাথে সাথেও পরিবর্তিত হতে পারে। আপনি এখানে নানান অ্যাওয়ার্ড উইনি নেটফ্লিক্স অরজিনালস প্রোগ্রাম, টিভি শো, ডকুমেন্টারি ফিল ও আরো অনেক কিছু দেখতে পারবেন।

আর আপনি যত বেশি নেটফ্লিক্সে কনটেন্ট দেখবেন, ততই ভালোভাবে আপনি এখান থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী টিভি শো কিংবা ফিল্মের রেকমেন্ডেশন পাবেন।

এর অরজিনাল কনটেন্ট গুলো খুবই উন্নত মানের ও বিনোদনমূলক হয়ে থাকে যা লোকপ্রিয় তার অন্যতম কারণ হিসেবে ধরা হয়। নেটফ্লিক্স এর সমস্ত ভিডিও ফাইল বিভিন্ন দূরবর্তী সার্ভারে সংরক্ষিত থাকে।

নেটফ্লিক্সাস্ক্রিপশন মূল্য বাংলাদেশ

আপনাকে ভিডিওগুলো স্ট্রিম করার জন্য যে কোন ফিল্ম বা শো নির্বাচন করতে হয়। আর এই স্টিম শুরু হতে কয়েক মুহূর্ত সময় লাগে। অনেক সাবস্ক্রাইবারি এখনো ডাটা কেবল ও কম ব্যান্ডউইথের প্ল্যান ব্যবহার করে।

তাই netflix এর কাছে ডেটার ব্যবহার একটি উদ্বেগের বিষয়ে উঠেছে। আপনি যেকোনো ল্যাপটপ, স্মার্টফোন কিনবা স্মার্ট টিভিতে সংযুক্ত থাকেন না কেন ভাল ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া এর স্ট্রিমিং বাধাগ্রস্থ হতে পারে।

তবে নেট এ সর্বনিম্ন 5.0Mbps এর ইন্টারনেট স্পিড প্রয়োজন হয়। কিন্তু স্মুথ স্ট্রিমিং অভিজ্ঞতার জন্য এই প্লাটফর্মটি আপনাকে 1.5 Mbps ইন্টারনেট স্পিড রাখার সুপারিশ দিয়ে থাকে। নেটফ্লিক্সের প্রস্তাবিত ইন্টারনেটের গতির একটি তালিকা দেয়া হলো-

1.5 Mbps: প্রস্তাবিত প্রয়োজনীয় ইন্টারনেট স্পিড। 3.0 Mbps: SD স্ট্রিমিং এর জন্য প্রস্তাবিত ইন্টারনেট স্পিড। 5.0 Mbps: HD স্ট্রিমিং এর জন্য প্রস্তাবিত ইন্টারনেট স্পিড। 25 Mbps: UHD(4k) স্ট্রিমিং এর জন্য প্রস্তাবিত ইন্টারনেট স্পিড।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button