উৎসব

আশুরার রোজা কবে ২০২২ এবং আশুরার রোজা কয়টি [ক্লিক করে দেখুন]

আশুরা মহান আল্লাহ তাআলার একটি অশেষ রহমত। মুসলিম উম্মাহর জনগণ পবিত্র আশুরা কে কেন্দ্র করে নানা রকম আয়োজন করে। আশুরাকে কেন্দ্র করে মুসল্লিগণ রোজা রাখে এবং নফল ইবাদত করে।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে 2022 সালের তারিখ সম্পর্কে বিস্তারিত জানব। সুতরাং আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ অরুন এবং আশুরার তাৎপর্য বিশ্লেষণ এবং কোরআন শরীফ বোখারী

শরীফ থেকে বিভিন্ন হাদিস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন। আপনারা জানেন পবিত্র আশুরা কবে 2022, ২০২২ সালের মহরম কবে ও কত তারিখে হবে? এবং মহররম মাসের রোজা কত তারিখ ও কোন দিনে?

একই সাথে আরও জানতে পারবেন মহরম মাসের ছুটি কত তারিখে? পবিত্র আশুরার গুরুত্ব ও ফজিলত এবং অর্থ সম্পর্কে। মুসলিম উম্মাহর সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে পবিত্র আশুরা।

যার কারণে আরবি মাসের শেষ মাস জিলহজ মাসের শেষের দিকে আসে নতুন বছরের আগমন এবং সামনে অপেক্ষা করে আরবি ক্যালেন্ডার এবং নতুন মাস ও বছর। আর সেই মাসটি হচ্ছে আরবি মাসের প্রথম মাস মহররম।

এ মাসে রয়েছে পবিত্র আশুরা। তাই সকল মুসলিম জানতে চাই পবিত্র আশুরা পালিত হবে। সারাদেশে 9 আগস্ট মঙ্গলবার পবিত্র আশুরা পালিত হবে। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে সভায় গৃহীত হয়েছে এই সিদ্ধান্ত।

তাই আগামী 9 শে আগস্ট সারা বাংলাদেশ ব্যাপী সরকারি-বেসরকারি ও আধা স্বায়ত্তশাসিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং অফিস বন্ধ থাকবে। তাহলে বন্ধুরা, এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের সামনে সকল তথ্য জানিয়ে দিলাম। আশা করি বুঝেছেন।

আপনারা অনেকেই আশুরার রোযা এবং কিভাবে পালন করতে হয়। সে সম্পর্কে জানতে চাচ্ছিলেন। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে বিস্তারিত আলোচনা করব।

হিজরি সনের প্রথম মাস মহররম। ইসলামের দৃষ্টিতে মহররম একটি বিশেষ মর্যাদাপূর্ণ মাস। অনেক ইতিহাস-ঐতিহ্য ও রহস্যময় তাৎপর্য নিহিত আছে এ মাস ঘিরে। এ মাসের ১০ তারিখ মুসলিম বিশ্বের তাৎপর্যপূর্ণ সেই আশুরার দিন।

এ দিনের সর্বাপেক্ষা আলোড়িত ও আলোচিত বিষয় হলো কারবালার মর্মান্তিক ইতিহাস। মহররমের রোজা রাখার বেশ কিছু নিয়ম রয়েছে। সহি হাদিসের আলোকে প্রমাণিত হয় যে, আশুরার রোজা হবে দুইটি।

মহররমের 10 তারিখ একটি আর নয় তারিখ অথবা 11 তারিখ আরো একটি। আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের সামনে আশুরার রোজা কয়টি, সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করেছি।

আপনার নফল এবং ফরজ সালাত, রোজার মত এবং রোজা সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ। এ বিষয়ে বেশ কিছু হাদিস বুখারী শরীফে এসেছে। প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর কর্তব্য হলো মুহররম মাসে আশুরার দুটি রোজা পালন করা,

আল্লাহতায়ার ইবাদত, বন্দেগি, জিকিরে সবশেষ মনোযোগী ও মশগুল হওয়া। আপনারা বসে না থেকে আল্লাহর জন্য ইবাদত করবেন। এতে পরকালে অনেক শান্তি পাবেন। আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আমি আপনাদের কিছুটা হলেও

আশুরার রোজা সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দিতে পেরেছি। আরও যদি কোন তথ্য পেতে চান ওয়েবসাইট ভিজিট করে জানার জন্য অনুরোধ রইল। আমরা অন্যান্য আর্টিকেল এর লিঙ্ক নিচে দিয়ে দিব।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button