রকমারি

মাদ্রাসার সার্টিফিকেট সংশোধন করার নিয়ম (সঠিক পদ্ধতি দেখুন)

আপনারা যারা মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেন। মাদ্রাসা সার্টিফিকেটের কোন কারনে ভুল আসতে পারে। সেটা হোক কারিগরি ত্রুটি জনিত কোন কারণ। আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের দেখাবো

মাদ্রাসার সার্টিফিকেট সংশোধন করার নিয়মাবলী সম্পর্কে। আপনারা যারা এই সম্পর্কে জানতে চান। আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং এ সম্পর্কে আরও বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন।

মাদ্রাসার সার্টিফিকেট কিভাবে সংশোধন করবেন। কিভাবে ফরম পূরণ করবেন। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পিতার নাম কিভাবে সংশোধন করবেন এবং কত দিনের মধ্যে সংশোধিত সার্টিফিকেট পাওয়া যায়।

সকল তথ্য এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে জানাবো। শেষ পর্যন্ত সাথেই থাকুন এবং আপনার কাঙ্ক্ষিত প্রশ্নের উত্তর জেনে নিন। আপনারা চাইলে বর্তমান সময় মাদ্রাসা সার্টিফিকেট এর যেকোনো ভুল ঘরে বসে সংশোধন করতে পারেন।

আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের দেখাবো। কিভাবে মাদ্রাসা সার্টিফিকেট ঘরে বসে সংশোধন করবেন। মাদ্রাসা সার্টিফিকেট সংশোধন করতে হলে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

বর্তমান সময়ে ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, সিলেট এবং বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের মাদ্রাসা সার্টিফিকেট সংশোধন করা যায় অনলাইনে। বাকি শিক্ষা বোর্ডগুলোর অফলাইনে অর্থাৎ ম্যানুয়ালি মাদ্রাসা সার্টিফিকেট এর জন্য সংশোধন করতে হবে।

এক্ষেত্রে আপনার নাম অথবা যেকোনো ধরনের তথ্য এফিডেভিট করতে হবে। এরপর পত্রিকার বিজ্ঞাপন দিতে হবে। পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির সময় সার্টিফিকেটে উল্লেখিত নাম বাবার নাম, পিতার নাম,

পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, উল্লেখ করতে হবে। এভাবে আপনারা একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়ার পর সেটা সংশোধনের জন্য যোগ্য হবে এবং সে কাগজপত্রগুলো অনলাইনে স্ক্যানিং এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বয়স সংশোধন করতে হলে নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করতে হয়। আপনারা চাইলে অনলাইনে ফরম পূরণ করতে পারেন। ফরম পূরণ করে সেটা নিকটস্থ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে পারেন।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের বয়স সংশোধনের ফরম আপনাদের সামনে দিব পিডিএফ ফাইল আকারে। এটা আপনারা অনলাইন থেকে ডাউনলোড করে প্রিন্ট আউট করে নিতে পারেন

এবং প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আপনার প্রধান শিক্ষক বরাবর প্রদান করতে পারেন। আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে এই ফরমটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

অন্যান্য শিক্ষা বোর্ডের যেভাবে পিতা মাতার নাম সংশোধন করা হয়। ঠিক সেইভাবে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের সার্টিফিকেট এর পিতার নাম সংশোধন করা যেতে পারে।

আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের দেখাবো। পিতার নাম এবং মাতার নাম সংশোধন করতে হলে আপনাকে অবশ্যই এফিডেভিট করতে হবে। তারপর জাতীয় পরিচয় পত্র পিতা-মাতার জাতীয় পরিচয় পত্র

এবং জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি প্রয়োজন হবে। উল্লেখিত কাগজপত্রের প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিতে হবে। যেকোনো দৈনিক জাতীয় পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়ার পর সে পত্রিকা পেপার কাটিং

এবং প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট নিয়ে নিকটস্থ শিক্ষাবোর্ডে যোগাযোগ করতে হবে। তারপর 500 টাকা ট্রেজারি চালান জমা দিয়ে সেই রশিদ নিয়ে নিকটস্থ শিক্ষা বোর্ডে জমা দিতে হবে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button