ব্যবসার আইডিয়া

ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা করার নিয়ম ২০২২ (বিস্তারিত দেখুন)

বর্তমান সময়ে কে বা বেকার থাকতে চায়। তবে আপনি চাইলে অল্প পুজিতে খুবই ভালভাবে বিভিন্ন ব্যবসা করতে পারেন। আজকে আমরা আপনাদের সামনে এমন একটি ব্যবসার আইডিয়া দিব।

যেটা আপনারা খুব অল্প পুজিতে ভাল ব্যবসা করতে।পারেন সেটা হচ্ছে ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা। ফ্লেক্সিলোডের মাধ্যমে আপনারা প্রতি মাসে 20 থেকে 30 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারেন। তবে একটু বুদ্ধি খাটিয়ে কাজটি করতে পারলে আরো বেশি ইনকাম করা যায়।

আজকে আমার এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করবো। আপনার যদি  ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করার কথা চিন্তা করে থাকেন।

তাহলে আমাদের আর্টিকেলটি আপনাদের জন্য উপকারে আসতে পারে। সুতরাং কথা না বাড়িয়ে চলুন মূল আলোচনায় শুরু করে দেওয়া যাক। আশা করি বোঝাতে পারবো যাবতীয় তথ্য।

আপনারা চাইলে ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা শুরু করে দিতে পারেন। এক্ষেত্রে ফ্লেক্সিলোডের বিজনেস শুরু করার আগে আপনাকে অবশ্যই দোকান নিতে হবে এবং ফ্লেক্সিলোড সিম নিতে হবে।

 আপনাকে অবশ্যই আগে  দোকান দিতে হবে। ফ্লেক্সিলোডের দোকান নেওয়ার পর দোকানের মালিকের সাথে চুক্তিনামা, জাতীয় পরিচয় পত্র, ট্রেড লাইসেন্স প্রয়োজন হবে।

 আপনারা উক্ত কাগজপত্র দিয়ে ফ্লেক্সিলোড এর সিম নিতে পারবেন। আপনারা উক্ত কাগজপত্র দিয়ে সিম কিনে ব্যবসা করতে পারেন।এছাড়া বিভিন্ন ধরনের মোবাইল ব্যাংকিং যেমন বিকাশ, রকেট, উপায় এগুলোর ব্যবসা করতে পারেন।

এগুলো ব্যবসার মাধ্যমে আপনারা প্রতি মাসে 20 থেকে 30 হাজার টাকা মাসে ইনকাম করতে পারেন। আশা করি পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে বিস্তারিত তথ্য জানতে পেরেছি।

আরও কোন তথ্য পেতে চাইলে ওয়েবসাইট ভিজিট করে জানুন। এটা কি জানেন যে ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করতে হলে প্রত্যেক অপারেটর জন্য আলাদা আলাদা সিম ক্রয় করতে হয়।

তবে এটা একটু অনেক কাছে ভেজাল এবং ডিজিটাল মনে নাও হতে পারে। আমরা ততক্ষণ এখন বর্তমান সময়ে একটি সিমে ডিজিটাল ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করা যায়। এছাড়া আপনার হাতে যদি কম্পিউটার থাকে।

কম্পিউটারের মাধ্যমে আপনারা ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা চালু করতে পারেন। এছাড়া কম্পিউটার না থাকলে আপনার হাতে থাকা অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের মাধ্যমে একটি সিম ব্যবহার করে সকল সিমে ফ্লেক্সিলোড ব্যবসা করতে পারেন।

এক্ষেত্রে প্রতি 1000 ফ্লেক্সিলোড করলে 30 টাকা কমিশন পাবেন। মানে দিনে যত বেশি টাকা ফ্লেক্সিলোড করবেন। তত বেশি টাকা তারা কমিশন পাবেন। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের পাওয়ার লোড,

ইন্টারনেট ক্রয় করার ক্ষেত্রে আরও বেশি অফার রয়েছে। একবার মাধ্যমে আপনার আব্বা মাসে 20 থেকে 30 হাজার টাকা ইনকাম করতে পারেন। ফ্লেক্সিলোডের পাশাপাশি

আপনার দোকানে বিভিন্ন ধরনের মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস চালু করতে পারেন। সেক্ষেত্রে বিকাশ ডাচ বাংলা ব্যাংক রকেট, উপায় ইত্যাদি এর ব্যবসা করতে পারেন।

এক্ষেত্রে প্রতি 1000 এ সর্বোচ্চ 50 টাকা করে কমিশন পাবেন। এছাড়া অনেকে এসব ক্যাশ আউট, ক্যাশ ইন কেনার ক্ষেত্রে আছে আকর্ষণীয় কমিশন।

আপনারা যদি ফ্লেক্সিলোডের ব্যবসা করতে চান। সেই সাথে বিকাশ সহ অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং এর এজেন্ট হিসেবে ব্যবসা শুরু করতে পারেন। 40 থেকে 50 হাজার টাকা দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করে দেওয়া যেতে পারে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button