রকমারি

কত পয়েন্টে কোন গ্রেড ডিগ্রি (Degree Grade Point System)

আপনারা অনেকেই জিজ্ঞেস করে থাকেন কত পয়েন্টে কত ডিগ্রী বলা হয়। আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে গ্রেড ভিত্তিক বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব। বিশেষ করে যারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে

এবং এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন। তারা এ বিষয়টি জানার জন্য ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে থাকেন।  আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে গ্রেডিং সিস্টেম

এবং এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার গ্রেডিং সিস্টেম কিভাবে করা হয়। সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব। প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং দেখে নিন বিস্তারিত তথ্য।

আপনার অনেক সময় জিজ্ঞাসা করে থাকেন যে। কত পয়েন্টে কত ডিগ্রী অর্জন করা হয়। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গ্রেটিং সিস্টেম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব।

আপনারা যদি কোন সাবজেক্টে 80 পার্সেন্ট এর উপরে নম্বর পান। সেটাকে এ প্লাস হবে। যদি এর কম পান। এক্ষেত্রে গ্রেড পয়েন্ট হবে আরো কম। এবং আপনি যদি কোন সাবজেক্টে 75% নাম্বার পেয়ে থাকেন।

তাহলে সেটা হিসেবে এ বিবেচিত হবে। এক্ষেত্রে আপনার পয়েন্ট হবে 3.75 এবং আপনি যদি কোন সাবজেক্টে 70 থেকে 75 শতাংশ নম্বর পেয়ে থাকেন। তাহলে সেটা এ মাইনাস হিসেবে বিবেচিত হবে। সেক্ষেত্রে আপনার রেটিং পয়েন্ট হবে 3.50।

আপনারা অনেকেই বিভিন্ন গেটিং সিস্টেম সম্পর্কে জানতে চান। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে বিভিন্ন ধরনের গ্রেড পয়েন্ট সিস্টেম নিয়ে আলোচনা করব।

আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়ুন এবং এই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন। এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার জিপিএ এর সাথে সনাতন পদ্ধতির

বিভাগের সামঞ্জস্য জিপিএ ৩.০০ বা তদূর্ধ্ব ১ম বিভাগ জিপিএ ২.০০ থেকে ৩.০০ এর কম ২য় বিভাগ জিপিএ ১.০০ থেকে ২.০০ এর কম  হচ্ছে তৃতীয় বিভাগ। আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে

বিস্তারিত তথ্য জানিয়ে দিতে পেরেছি। আরও যদি কোন তথ্য পেতে চান। আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া অনান্য আর্টিকেলটি পড়ুন। অনার্স এর গ্রেড পয়েন্ট পদ্ধতি সম্পর্কে আপনারা জানার জন্য ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে থাকেন।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে অনার্স গ্রেডিং পয়েন্ট বের করার পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব। আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনার্স সিজিপিএ

বের করার নিয়ম পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের জানাচ্ছি। কোন বিষয়কে প্রাপ্ত পয়েন্টকে ক্রেডিট দিয়ে গুন করে এভাবে সকল সাবজেক্ট এর পয়েন্ট যোগ করে গুণফল কে যোগ করে এক বছরের মতো পয়েন্ট পাওয়া যাবে।

পাস কৃত সকল পর্বের ক্রেডিট যোগ করে পাওয়া যাবে এক বছরে মোট অর্জিত ক্রেডিট।  আশা করি এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে বিস্তারিত তথ্য জানাতে পেরেছি। আর যদি কোন তথ্য পেতে চান।

আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করে জেনে নিতে পারেন। আপনারা যদি কোন সাবজেক্টে 80% উপরে নাম্বার পান। তাহলে সেটা এ প্লাস অথবা ফার্স্ট ক্লাস এবং 75 থেকে 80 শতাংশ নাম্বার পেলে সেটা 3.75 অর্থাৎ ফাস্ট ক্লাস হিসেবে বিবেচনা হবে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button