উৎসব

বঙ্গবন্ধুর কত তম মৃত্যু বার্ষিকী ২০২২ [জানতে এখানে ক্লিক করুন]

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান 1920 সালের 17 মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। 15 আগস্ট 1975 সালে বিপথগামী সেনাবাহিনীর কিছু সদস্যের হাতে বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হন। আজকে আমরা বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে কিছু বিষয় আলোচনা করব।

আপনি যদি বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে জানতে চান তাহলে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালি জাতির অনুপ্রেরণার এক অনন্য নাম। তার হাত ধরে ই বাংলার বাঙালি জাতি নতুন এক দেশ পেয়েছে।

বঙ্গবন্ধু তারা রাজনৈতিক জীবন কালে দেশের জন্য অসামান্য অবদান রেখে গেছেন। 1966, 1969,1971 সাল প্রত্যেক ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু অসামান্য ভূমিকা রেখে গেছেন। তার ভূমিকা এবং তার অসামান্য কার্যক্রম বাঙালি জাতি চিরজীবন মনে রাখবেন।

আমাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান 1975 সালের 15 ই আগস্ট নৃশংসভাবে সপরিবারে নিহত হন। 2022 সালের 15 আগস্ট তার 47 তম মৃত্যুবার্ষিকী হিসেবে পালিত হবে। এ দিনটি বাংলাদেশের মানুষের কাছে একটি বেদনার দিন।

এ দিনটি বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গাতে খুবই কষ্টভরা মনে পালিত হয়। এই দিনে শেখ মুজিবরের জন্য এবং তার পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া ও মিলাদের অনুষ্ঠান করা হয়।

1975 সালের 15 আগস্টের এই দিনটিতে প্রায় 26 জন সদস্য নিশংস ভাবে নিহত হয়। তাদের স্মরণেই এই দিনটিকে পালন করা হয় এবং তাদের জন্য দোয়া করা হয়। এই দিনটি শোক দিবস হিসেবে পালিত হয়।

সেজন্য এই দিনটি সরকারি ছুটির দিন। এই দিনে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস আদালত বন্ধ থাকে এবং এই দিনটিতে সকল প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে রাখা হয়।

1920 সালের 17 মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় তাদের নিজ বাসভবনে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্ম দিবসের উপলক্ষে 17 মার্চ কে শিশু দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

শেখ মুজিব তার জীবনকালে দেশের জন্য অনেক অবদান রেখে গেছেন। তিনি তার রাজনৈতিক জীবনকালে অনেক অবদান রেখেছেন। ১৯৪৯ থেকে শুরু করে 1975 সাল পর্যন্ত তিনি রাজনৈতিক জীবনে নিজের কথা

না ভেবে দেশের কথা ভেবে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন। তার স্মরণে তার মৃত্যুর দিনটিকে শোক দিবস হিসেবে পালন করা হয় এবং তার স্মরণে তার জন্ম দিনটিকে জাতীয় শিশু দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন নিয়ে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে বেশ কয়েকটি কবিতা , ছন্দ, গান প্রকাশ করা হয়েছে। আপনারা চাইলে সেগুলো দেখতে পারেন। অথবা সেগুলো আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

চাইলে সেগুলো কপি করেও রাখতে পারেন। বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে আমরা আমাদের ওয়েব সাইটে বেশ কয়েকটি পোস্ট প্রকাশ করেছি। আপনি চাইলে সেগুলো দেখতে পারেন।

বঙ্গবন্ধু তার জীবন কালে ”অসমাপ্ত আত্মজীবনী” নামে একটি বই লিখে গেছেন। এই বইটি পড়লে তার রাজনীতি জীবনের আত্মত্যাগের কিছুটা বিষয় বুঝতে পারা যায়।

বইটিতে তিনি তার জীবনের সম্পূর্ণ অংশ লিখে যেতে পারেননি। তাই বইটির নাম অসমাপ্ত আত্মজীবনী। শেখ মুজিব সম্পর্কে এরকম আরো বিভিন্ন তথ্য জানতে চাইলে আমাদের অনন্যা পোস্ট করে দেখুন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button