স্বাস্থ্য

লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা [ত্বকে, চুলে এবং খালি পেটে] লেবু খাওয়ার উপকারিতা দেখুন

আমরা কমবেশি বিভিন্ন ধরনের ফল খেয়ে থাকি। একেক ফলের একেক রকম পুষ্টিগুণ রয়েছে। পরিচিত ফলগুলোর মধ্যে অন্যতম লেবু।প্রায় সব ঋতুতেই ফল হিসেবে লেবু পাওয়া যায়। লেবু বেশিরভাগ মানুষ খেতে ভালোবাসে।

অনেকে লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে জানেনা। আমাদের আজকের আর্টিকেলে ত্বকের যত্নে লেবুর ভূমিকা, লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আপনারা যদি আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়েন।

তবে আপনারা লেবুর গুনাগুন সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারবেন। সকলের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ফল লেবু। লেবু চিনে না এমন মানুষ খুব কম পাওয়া যাবে। লেবুর উপকারিতা কথা বলে শেষ করা যায় না।

আপনাদের মধ্যে অনেকেই লেবুর ভালো দিক এবং খারাপ দিক গুলো জানেন না। আজকের পোষ্টে লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। বর্তমানে খুবই কমন একটি রোগ ক্যান্সার।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে পারে লেবু। যারা ক্যান্সার আক্রান্ত তাদেরকে বেশি বেশি লেবু খেতে বলা হয়। এছাড়াও অনেকের উচ্চরক্তচাপ দেখা যায়। লেবু বেশি খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। তাছাড়া অনেক সময়ই দুর্ঘটনায় অনেক জায়গা কেটে যায়।

কাটার ক্ষত সারাতে লেবুর ভূমিকা রয়েছে। আমাদের মধ্যে অনেকেরই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। আমরা যদি লেবু পরিমিত পরিমাণ খাই তবে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

লেবু পাকস্থলী সুস্থ রাখে। তাছাড়া ফুসফুসের জন্য লেবুর ভূমিকা অনস্বীকার্য। অনেক সময় নানা কারনে আমাদের মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। লেবু মুখের দুর্গন্ধ দূর করে। গর্ভবতী নারীদের জন্য লেবু অত্যন্ত কার্যকরী।

যারা গর্ভবতী তাদের অনেক সময় মুখে রুচি থাকে না। তারা যদি লেবু খান তবে মুখের গন্ধ দূর হয়ে যাবে। এছাড়াও লেবু ওজন হ্রাস করে। বয়সের ছাপ দূর করে লেবু। লেবুর যেমন উপকারিতা রয়েছে তেমন অপকারিতা রয়েছে।

বেশি পরিমাণ লেবু খেলে বুকের জ্বালাপোড়া করতে পারে। তাছাড়া অতিরিক্ত লেবু খেলে দাঁতের ক্ষয় হয়। অনেক সময় বেশি পরিমাণ লেবু খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বেড়ে যায়। বর্তমানে পরিচিত একটি রোগ মাইগ্রেন।

লেবু বেশি খেলে মাইগ্রেনের ব্যথা বেড়ে যায়। এছাড়াও অতিরিক্ত পরিমাণে ফেলে পরিপাক ক্ষতিগ্রস্থ হতে দেখা যায়। আশা করি আপনারা যারা লেবুর উপকারিতা এবং অপকারিতা সম্পর্কে জানতেন না তারা আমাদের আর্টিকেলটি পড়ে ধারণা পেয়েছেন।

আমরা বেশির ভাগ সময় আমাদের দেহের ত্বকের যত্নে এবং ত্বকের দাগ দূর করতে নানা রকম ক্রিম কিংবা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট মূলক উপকারক ব্যবহার করে থাকি।

দিন শেষে অনেকেই আশানুরূপ ফলাফল পায় না। সেক্ষেত্রে আমরা লেবু ব্যবহার করতে পারি।প্রাচীন কাল হতেই লেবু পরিষ্কারক উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। লেবু দ্ধারা খুব ভালোভাবে সব কিছু পরিষ্ককার করা সম্ভব।

একই ভাবে আমাদের ত্বকও এর বাহিরে নয়। লেবুতে থাকা প্রাকৃতিক পরিষ্কারক উপাদান যা ত্বকের লাবণ্য ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।এছাড়াও লেবুতে রয়েছে প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান।

এটি আমাদের ত্বকের কালোদাগ ও পোড়া দাগ দূর করে। বেশি উপকারিতা পেতে লেবুর রসের সাথে সামান্য মধু মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করতে হবে। এতে করে ত্বকে সৌন্দর্য একটা ভাব চলে আসবে।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button