ইসলামিক

ছেলেদের আকিকা দেওয়ার নিয়ম (সঠিক নিয়ম দেখুন এখানে)

আপনি কি ছেলে সন্তানদের আকিকার দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? অথবা কোরবানির সাথে আকিকা দেওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? উত্তর যদি হ্যাঁ হয় তাহলে এই পোস্ট আপনার জন্য।

আমরা আজকে এই পোস্টে আকিকা দেওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করব। তাই দেরি না করে  পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ মুসলমান।

মুসলমানদের উপর আকিকা দেওয়া সুন্নতে মুয়াক্কাদা। এই সুন্নতে মুয়াক্কাদা পালন না করলে পিতা-মাতা গুনাহের অংশীদার হবে। তাছাড়া আকিকা দেওয়া পিতা-মাতার জন্য সন্তানের হক।

তাই পিতা-মাতার উচিত সন্তানের হক সঠিকভাবে আদায় করা। তাই আমাদের সকলের উচিত সঠিক নিয়মে আকিকা দেওয়া। আমরা অধিকাংশ মানুষ আকিকার সঠিক নিয়ম জানি না সেজন্য আকিকা সম্পর্কে

সঠিক ধারণা দেওয়ার জন্য আজকের এই পোস্ট। তাই পোস্টটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। প্রত্যেক সন্তানের জন্যই আকিকা দেওয়া জরুরী। সন্তান জন্মগ্রহণের পরে পিতা-মাতার উপর আকিকা দেওয়ার দায়িত্ব বর্তায়।

আকিকা হচ্ছে সন্তানের জানের নিরাপত্তা স্বরূপ আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কুরবানী। তাই সন্তানের নিরাপত্তা জনিত কারণে এবং আল্লাহকে সন্তুষ্ট করার জন্য আকিকা দেওয়া জরুরী।

আকিকার দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আলেমগণ বলেন, ইসলামী বলা আছে ছেলেদের জন্য দুটি পশু এবং মেয়েদের জন্য একটি পশু আল্লাহর রাস্তায় উৎসর্গ করা। তাছাড়া আকিকা দেওয়ার জন্য

চার পা বিশিষ্ট গৃহপালিত প্রাণীগুলো কুরবানী করতে হয় বা জবাই করতে হয়। অর্থাৎ আপনি চাইলে ছাগল অথবা গরু আকিকা হিসেবে বেছে নিতে পারবেন। তবে ছাগল দেওয়া সম্পর্কে আলেমগণ পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

সকল বিষয়ে পর্যালোচনা করলে বুঝা যায় ছেলে সন্তানদের জন্য দুটি ছাগল এবং মেয়ে সন্তানদের জন্য একটি ছাগল কুরবানী দিতে হবে। এই সকল বিষয়ে যদি আপনি আরো বিস্তারিত তথ্য জানতে চান?

তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের অন্যান্য পোস্ট গুলো দেখুন। সেখানে আকিকা সম্পর্কে আরো বেশ কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে। আকিকা দেওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে বলতে গেলে বলতে হবে গরু

অথবা ছাগল দিয়ে সন্তানের জন্মের ৭ দিনের দিন আকিকা দিতে হবে। তবে সাত দিনের দিন আকিকা দেওয়া না হলে 14 দিন অথবা 21 দিনের দিনও আকিকা দেওয়া যেতে পারে। আলেমগণ বলে থাকেন,

সাত দিনের আকিকার দেওয়া উত্তম। তাছাড়া আকিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে সন্তানের সাত দিনের দিন মাথার চুল কেটে সেই চুল পরিমাণ রুপার মূল্য গরীব দুঃখীদের মধ্যে দান করে দিতে হবে। আকিকা দেওয়া সুন্নতে মুয়াক্কাদা।

সন্তানের হক স্বরূপ পিতা-মাতার আকিকা দেওয়া উচিত। আমাদের উচিত আকিকা দেওয়ার সঠিক নিয়ম জেনে সঠিক ভাবে আকিকা দেওয়া। অনেক আলেমগণ  বলে থাকেন, কোরবানির সাথে আকিকা না দেওয়া উত্তম।

আবার কিছু আলেমরা বলেন কুরবানীর সাথে আকিকা দেওয়া  যায়। তবে বেশিরভাগ আলেমের মতে আকিকা দিতে হয় সন্তান জন্মের সাত দিন অথবা 14 দিন অথবা 21 দিনের দিন।

আপনি যদি কোরবানির সাথে আকিকা দিতে চান তাহলে সাত দিন, 14 দিন অথবা 21 দিনের দিন সন্তানের আকিকা দেওয়া। সেটা সম্ভব  না হলে সে ক্ষেত্রে আকিকার সঠিক নিয়ম পালন করা হয় না।

তাই অধিকাংশ আলেমদের মতে কুরবানীর সাথে আকিকা না দেয় উত্তম এবং কিছু আলেমের মধ্যে কুরবানীর সাথে আকিকা দিলে হয়ে যাবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে আপনি বড় বড় আলেমদের সাথে আলোচনা করতে পারেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button