ইসলামিক

বাচ্চা হওয়ার পর আজান দেওয়ার নিয়ম (ক্লিক করে দেখুন)

আপনারা কি বাচ্চা হওয়ার পর আযান দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন? অথবা আজান ও ইকামতের মধ্যে পার্থক্য জানতে চাচ্ছেন? যদি আপনারা এই সকল বিষয়ে জানতে চান তাহলে আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের জন্যই।

আমরা আজকে আমাদের এই পোস্টে এই সকল বিষয়ে আলোচনা করেছি। আপনারা যদি আমাদের এই পোস্টটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়েন তাহলে আপনারা বাচ্চা হওয়ার পর

আযান দেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পারবেন। এছাড়াও আপনারা আজান ও ইকামতের মধ্যে পার্থক্য জানতে পারবেন। আল্লাহ তায়ালা ইসলামী শরীয়তে শিশু জন্মের পর কিছু নিয়মকানুন অনুসরণ করতে বলেছেন।

এ সকল নিয়ম কানুনগুলোর মধ্যে রয়েছে বাচ্চা হওয়ার পর বাচ্চার কানে আযানের বাক্য পৌঁছে দেওয়া। এর মাধ্যমে ওই নবজাতক শিশুকে ইসলামের প্রতি আহ্বান করা হয় এবং আল্লাহর পরিচয় তুলে ধরা হয়।

অনেকেই আছেন বাচ্চা হওয়ার পর আযান দেওয়ার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে জানেন না। আর এজন্য অনেকে অনলাইনে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে এই বিষয়ে জানতে চায়।

তাই আমরা এই পোস্টটিতে বাচ্চা হওয়ার পর আযান দেওয়ার সঠিক নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি। আমাদের সমাজে বাচ্চা হওয়ার পর আযান দেওয়ার নিয়ম নিয়ে অনেক পার্থক্য দেখা যায়।

একেক জন বাচ্চার কানে একেক ভাবে আযান দিয়ে থাকে। ইসলামী শরীয়তের বিধান হিসেবে বাচ্চা হওয়ার পর আযান দেওয়া সঠিক নিয়ম হচ্ছে কারো যদি বাচ্চা হয় তাহলে সাথে সাথে সেই বাচ্চার কানে তার বাবা,

নানা, বা যে কেউ থাকুক আজানের বাক্যগুলো বলে দেওয়া। অনেকেই মনে করেন যে, আলেম বা ইমাম সাহেব ছাড়া কেউ বাচ্চার কানে আযান দিতে পারে না। কিন্তু এটি ভুল একটি ধারণা।

বাচ্চার কানে তার পিতা অথবা তার দাদা, নানা যে কেউ আযান দিতে পারবে। তবে তা দিতে হবে নিম্নসরে। উচ্চস্বরে বাচ্চার কানে আযান দেওয়া যাবে না। আজান ও ইকামতে বাক্যগুলো এক হলেও এর মধ্যে কিছুটা পার্থক্য রয়েছে।

অনেকে আযান ও ইকামতের পার্থক্য জানতে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে। তাই আমরা এই পোস্টটিতে আযানের ইকামতের পার্থক্য নিয়ে আলোচনা করেছি। আল্লাহ তায়ালা দৈনিক পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের আগে আযান দিতে বলেছেন।

আজানের মাধ্যমে মুসলিমদেরকে নামাজের আহ্বান করা হয়ে থাকে। আযান দিতে হয় উচ্চস্বরে এবং সুমধুর কন্ঠে নামাজের ওয়াক্ত হওয়ার সময়। আর ইকামত দিতে হয় ফরজ নামাজ শুরু করার আগে এবং ইকামত দিতে হয় তাড়াতাড়ি এবং নিম্নস্বরে।

অনেকে আছেন যারা আজানের আরবি উচ্চারণ পড়তে পারে না। যার কারণে অনেকে আজানের  বাংলা উচ্চারণ পড়তে চান। তাই আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের অন্যান্য কতগুলো পোস্টে আযানের বাংলা উচ্চারণ প্রকাশ করেছি।

আপনারা যদি বাংলায় আযান শিখতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন এবং আমাদের ওয়েবসাইটের অন্যান্য পোস্টগুলো পড়তে পারেন।

আযান ছাড়াও আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে ইসলামিক বিষয়ে আরো কতগুলো পোস্ট প্রকাশ করেছি। আপনারা যদি ইসলামের বিধি-বিধান সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের তথ্য জানতে আগ্রহী থাকেন তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটের অন্যান্য পোস্টগুলো পড়তে পারেন।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button