রকমারি

সার্টিফিকেট নাম সংশোধন ফরম (ঢাকা, বরিশাল, সিলেট বোর্ড) ডাউনলোড করুন

একটা মানুষের সারা জীবনের অর্জন যেটাকে বলা হয়  সার্টিফিকেট। সার্টিফিকেট এ যদি কোন ধরনের ত্রুটি-বিচ্যুতি পরিলক্ষিত হয়। সেটা নিশ্চয় আপনার জন্য ক্যারিয়ারের জন্য ক্ষতি হতে পারে।

তাই আপনারা অনেকেই সার্টিফিকেট এর বিভিন্ন ত্রুটিগুলো সংশোধন করতে চান আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের সামনে সকল তথ্য বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করব।

আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়েন। সার্টিফিকেটে কোন ধরনের ভুল হলে সেটা সংশোধন করার জরুরি  সেটা হতে পারে। নিজের নাম অথবা বাবা-মার নাম কিভাবে আপনারা এই কাজটি সম্পন্ন করবেন।

ঘরে বসে কিভাবে সার্টিফিকেটের নাম সংশোধন করবেন। এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে আমি আপনাদের সামনে বিস্তারিত তথ্য জানাচ্ছি। শেষ পর্যন্ত সাথে থাকুন এবং আপনি বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন।

আজকে আমি পোষ্টের মাধ্যমে ঘরে বসে কিভাবে সার্টিফিকেট সংশোধন করবেন। সেটা আপনাদের কাছে জানাবো। সার্টিফিকেট সংশোধন অনলাইন বা অফলাইনে কিভাবে করা যায়।

তবে দালাল বা থার্ড পার্টি ঝামেলা এড়াতে অনলাইনে সংশোধন করার ভালো হতে পারে। আইনজীবীর মাধ্যমে নাম্বার জন্মতারিখ পুরো সংশোধনের জন্য প্রথমে নোটারি বা এফিডেভিট করতে হবে।

প্রার্থীর নিজের নাম সংশোধনের ক্ষেত্রে তার বয়স 18 বছর বেশি হয় তাহলে তিনি নিজেই এফিডেভিট করতে পারবেন। প্রার্থীর বয়স 18 বছরের কম হয়। প্রার্থী যদি তার নাম সংশোধন করতে চান।

তাহলে নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে প্রার্থীর বাবা কর্তৃক প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট বা নোটারি পাবলিকের কাছ থেকে এফিডেভিট করে নিতে হবে। দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে হবে। এটা করতে হবে।

হলফনামা সম্পাদনের পর বিজ্ঞপ্তিতে প্রার্থীর সার্টিফিকেটের নাম, বাবার নাম মায়ের নাম, শাখা, পরীক্ষার সাল, পরীক্ষার কেন্দ্রের নাম, রোল নাম্বার বোর্ডের নাম জন্ম তারিখ উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তি ছাপাতে হবে।

রাজা ঢাকা বোর্ডের বিভিন্ন সার্টিফিকেট সংশোধন সম্পর্কে জানতে চাচ্ছিলেন। আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে আপনাদের জানাব। ঢাকা বোর্ডের  সার্টিফিকেটে যদি কোনো ধরনের ত্রুটি বিচ্যুতির পরিলক্ষিত হয়।

আপনারা ঢাকা মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ছাত্র-ছাত্রীর নাম পিতার নাম মাতার নাম এবং পদবী সংশোধনের আবেদনপত্র টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

সেখানে জন্য ছাত্র-ছাত্রীর নাম পিতার নাম মাতার নাম পরীক্ষার কেন্দ্র। সেটা সফলভাবে তথ্য দিতে হবে। নাম সংশোধনের পরীক্ষার জন্য 500 টাকা বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে সোনালী সেবা

ফরম পূরণ করে প্রিন্ট আউট কপি একই দিনে সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায় জমা দিয়ে বোর্ডের আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে। 200 টাকা মূল্যের নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে পিতা কর্তৃক প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট

বা নোটারি পাবলিকের নিকট তার সন্তানের পিতা মাতার নাম সংশোধন করতে হবে। বিস্তারিত তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া অনন্য আর্টিকেলটি পড়ুন। আশা করি বুঝবেন।

আপনারা অনেকেই ঢাকা বিভিন্ন বোর্ডের সার্টিফিকেটের নাম সংশোধন করার ফরম টি ডাউনলোড করতে চাই আপনাদের সামনে একটি লিঙ্ক https://dhakaeducationboard.gov.bd দিচ্ছি। এই লিংকে ক্লিক করে পিডিএফ ফাইলটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button