মোবাইল ব্যাংকিং

একটি আইডি কার্ড (NID) দিয়ে কয়টি নগদ একাউন্ট খোলা যায় [ক্লিক করে জেনে নিন]

সুপ্রিয় গ্রাহক , আজকে আপনাদের সামনে নগদ একাউন্ট এর বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব। আপনারা যারা নগদ একাউন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চান। এই আর্টিকেলটি পড়ে প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

নগদ ডাক বিভাগের ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে আপনারা খুব সামান্য টাকা লেনদেন করতে পারবেন। এছাড়া আপনারা অনেকেই জানতে চাচ্ছি কিভাবে নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স চেক করা যায়।

 আজকে আমরা এ আর্টিকেল এর মাধ্যমে সংক্রান্ত তথ্য উপস্থাপন করব । আশাকরি আপনাদের কাছে খুবই ভালো লাগবে। তবে আপনাদের জানিয়ে রাখি যে , আপনারা শুধুমাত্র একটি জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে একটি নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

নগদ একাউন্ট এর ব্যালেন্স চেক করার জন্য প্রথমে আপনার নগদ যেই মোবাইল নাম্বার দিয়ে খোলা সেই নাম্বার থেকে ডায়াল করুন *167#। এরপর আপনার সামনে অনেকগুলো অপশন চলে আসবে। অনেকগুলো অপশন এর ভেতর থেকে আপনি সাত নম্বর অপশনটিকে দেখুন।

সেখানে লেখা রয়েছে মাই নগদ আপনাকে যে কাজটি করতে হবে মাই নগদ এ  যাবার জন্য ৭ লিখে তারপর সেন্ড বাটনে ক্লিক করতে হবে । এছাড়া আপনারা জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে কতটি নগদ একাউন্ট খুলতে পারেন।

 ধরেন আপনার  নাম্বারে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে একটি অ্যাকাউন্ট খোলা আছে । কিন্তু আপনার আরেকটি গ্রামীণফোন নাম্বারে আপনি আপনার এনআইডি কার্ড দিয়ে আর কোন নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন না।

পরিচয় পত্র ছাড়া কিভাবে নগদ একাউন্ট খোলা যায় সে তথ্য জানতে চাচ্ছিলেন  । এখন  10 সেকেন্ডে নগদ একাউন্ট খোলা যাবে জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়া । আর একাউন্টে যে কোন পরিমাণ লেনদেন করতে পারবেন।  যে কোন গ্রাহক সিম কেনার সময় জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে সিম কেনা হয়েছিল।

সে নামে সরকার সরাসরি নগদ একাউন্ট রেজিস্টার হয়ে যাবে। সিম কেনার সময় যে জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে সিম কেনা হয়েছিল । সে নামে সরাসরি নগদ একাউন্টের রেজিস্টার হয়ে যাবে।

নগদে বর্তমানে প্রতি হাজারে ক্যাশ আউট চার্জ 9.99 টাকা সাথে 1.50 পয়েন্ট প্রযোজ্য হবে। জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়া নগদ একাউন্ট খুলতে হলে আপনার নিম্নোক্ত পদ্ধতি অনুসরণ করুন এবং এই কোডটি *167# ডায়াল করুন।

আজকে আমরা এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে নগদ একাউন্ট এর বিস্তারিত তথ্য আলোচনা করব । আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন।  নগদ হচ্ছে ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন। বর্তমানে ডিজিটাল লেনদেন সেবা বিভিন্ন ডিজিটাল প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে।

বাংলাদেশ সরকারের ডাক বিভাগের আওতায় একটি ডিজিটাল আর্থিক সেবার নাম হচ্ছে নগদ। ২০১৮  সালের নভেম্বর মাসের নগর প্রতিষ্ঠান যাত্রা শুরু হয়, তবে বর্তমানে এখন নগদ খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এর সেবা ও জনপ্রিয়তা বিকাশ এর মতই।

আর এখন বর্তমানে নগদ সেবা এতটাই সহজ যে মানুষ নগদ একাউন্ট খোলার পদ্ধতি জানার জন্য উৎসাহিত হচ্ছে। নগদ একাউন্ট খোলার জন্য আপনি নগদ উদ্যোক্তা বা এজেন্টের মাধ্যমে নগদ একাউন্ট খুলতে পারবেন,মধুর আর্টিকেলটি পড়ে আপনার সকল তথ্য জানিয়েছেন নিশ্চয়ই

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button