উৎসব

বাংলা নববর্ষ প্রচলন করেন কে এবং বাংলা নববর্ষ প্রথম কে চালু করেছিলেন [ক্লিক করে জেনে নিন]

আমরা তো সবাই পহেলা বৈশাখ পালন করে থাকি। কিন্তু আমরা কি জানি পহেলা বৈশাখের ইতিহাস সম্পর্কে? নিশ্চয়ই না। আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে পহেলা নববর্ষের ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

 সেই 1556 সাল থেকে সম্রাট আকবর নতুন বর্ষ পঞ্জিকা অনুযায়ী পহেলা বৈশাখ পালন করে আসছে। দুটি প্রচলিত মত আছে বাংলা সাল গণনা এবং পহেলা বৈশাখের ব্যাপারে। নিশ্চিত করে আমি বলতে পারছি না, কে শুরু করেছিলেন।

তবে, বাংলা সাল এবং মাসের নামগুলো অনেক আগে থেকেই ছিলো, সম্রাট আকবরের নির্দেশে সূর্য্যভিত্তিক আধুনিকায়ন করেছিলেন ফতেউল্লাহ শিরাজী। তাহলে বন্ধুরা, কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক আজকের পোস্ট।

বাংলা নববর্ষ ১৪২৯ শুভেচ্ছা

শুভ নববর্ষ 2022 ছবি, পিক

আপনার অনেকে জানতে চান বাংলা নববর্ষ কে চালু করে। আজকে আমরা এ পোস্টের মাধ্যমে জানা বাংলা নববর্ষের প্রচলন কোন আমল থেকে শুরু হয়। কৃষিকাজের সুবিধার জন্য মোগল সম্রাট আকবর ১৫৮৪ সালে বাংলা সন প্রবর্তন করেন।

 ৫ নভেম্বর ১৫৫৬ তার সিংহাসন আরোহনের দিন হতে তা কার্যকর হয়।এছাড়া চৈত্র মাসের শেষদিকে ব্যবসায়ীদের সকল ধরনের বাকি পাওনা মিটিয়ে নতুন বছর শুরু করতে হয়। তাই মহাজনেরা তাদের কর্মীদের মিষ্টান্ন দ্বারা আপ্যায়ন করে নতুন বছর শুরু করে।

 এছাড়া ব্যবসায়ীরা তাদের বাকির খাতা বন্ধ করার জন্য হালখাতার আয়োজন করে এ বৈশাখ মাসে। তখন থেকেই মূলত বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি পালিত হয়ে আসছে।

শুভ নববর্ষ ২০২২ শুভেচ্ছা মেসেজ

বাংলা নববর্ষ নিয়ে উক্তি এবং স্ট্যাটাস

তবে জানা যায় সম্রাট আকবরের আমলে বাংলা নববর্ষ পালন করা হয়। যেহেতু ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাংলা নববর্ষ সবার জন্য একটি সার্বজনীন উৎসব। তাই অবশ্যই জানা উচিত পহেলা নববর্ষ অর্থাৎ পহেলা বৈশাখ কে চালু করেন।

এই প্রশ্নটি বাংলা ভাষায় প্রকাশিত একটি প্রশ্ন। আমরা জানি এটি আপনার কাঙ্খিত প্রশ্ন এবং আপনি এই প্রশ্নের উত্তর খুজছেন। আশা করি উত্তরের জন্যে আপনি ঠিক জায়গায়ই এসেছেন।

বাংলা নববর্ষ রচনা ১০০০ শব্দের

বাংলা নববর্ষ উদযাপনের ইতিহাস

নিচে দেখুন আপনার কাঙ্খিত প্রশ্ন বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ চালু করেন কে এর উত্তর দেয়া হয়েছে। 1856 সালে সম্রাট আকবর তিনি সৌর পঞ্জিকা থেকে সমস্যাসময় থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য তিনি মূলত বাংলা বর্ষপঞ্জিকা তৈরি করেন।

তখন থেকে 14 ই এপ্রিল অর্থাৎ পহেলা বৈশাখ পালন করার রীতি নীতি চালু হয়ে আসছে। এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউট থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। এছাড়া সারা বাংলাদেশ ব্যাপী

এবং বাংলাদেশের টিভি চ্যানেল গুলোর আলাদা আলাদা অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে থাকে। বাংলাদেশ মূলত মুসলিম প্রধান দেশ। কিন্তু আমাদের এই মুসলিম প্রধান দেশে কোনো উৎসবে হিন্দুরা কোন সময় শরিক হয় না।

শুভ নববর্ষ কবিতা ২০২২

বাংলা নববর্ষ নিয়ে কিছু কথা

এছাড়া হিন্দুদের কোন উৎসবে মুসলিমরা শরিক হয় না। পহেলা বৈশাখ এমন একটি উৎসব। যেখানে হিন্দু, ধর্ম, বৌদ্ধ খ্রিষ্টান নির্বিশেষে সকলেই একই কাতারে আসে এবং উদযাপন করে।

আজকে আমরা এই পোষ্টের মাধ্যমে বাংলা নববর্ষের সার্বজনীন উৎসব বলা হয় কেন। সেটার উত্তর দিয়ে দিলাম। আশাকরি আপনাদের কাছে খুবই ভালো লেগেছে। আর্টিকেলটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

Bangla Master

Bangla Master ওয়েবসাইট এর পক্ষ থেকে আপনাদেরকে স্বাগতম। এই ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বিষয়ক তথ্য আপনি জানতে পারবেন। স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত সকল আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত দেয়া হয়ে থাকে। আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং চাকরি বিষয়ক তথ্যগুলো আমরা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছি।
Back to top button